উখিয়ায় নিখোঁজ স্কুল ছাত্রী ২২ দিনেও উদ্ধার হয়নি!

উখিয়ার পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী রিয়াজুন নেছা (১৫) নিখোঁজের ৩ সপ্তাহ পরও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

নিখোঁজ ছাত্রী জালিয়াপালংয়ের লম্বরী পাড়া গ্রামের প্রতিবন্ধি হাফেজ বদিউল আলমের কন্যা।

পরিবারের অভিযোগ স্কুল ছাত্রীকে পরিকল্পিতভাবে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে আটকে রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উখিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি লিপিবদ্ধ করা হয়েছে।

থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়, স্কুল পড়ুয়া ছাত্রী রিয়াজুন নেছা গত ১১ এপ্রিল স্কুলে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজাখুজির পর সন্ধান না পেয়ে দৃষ্টি প্রতিবন্ধি পিতা হাফেজ বদিউল আলম গত ১২ এপ্রিল উখিয়া থানায় মেয়ে উদ্ধারে সাধারণ ডায়েরি লিপিবদ্ধ করেন। নিখোঁজের দীর্ঘ ২২ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও মেয়ের সন্ধান ও উদ্ধার না হওয়ায় পুরো পরিবার উৎকন্ঠায় রয়েছেন।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধি পিতা অভিযোগ করে বলেন, তিনি অতি সম্প্রতি হলদিয়াপালংয়ের গোরামিয়ার গ্যারেজ চন্দ্রবনিয়া মাঠ সংলগ্ন এলাকায় পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করছিলেন। ওই এলাকার সন্ত্রাসী ও বখাটে শাহ আলম প্রকাশ আকতার মিয়া, আবুল কাশেম প্রকাশ পুতিয়ার নেতৃত্বে একদল দূবৃত্ত আমার মেয়েকে অপহরণ করেছে। এই সন্ত্রাসী গ্রুপ দীর্ঘদিন ধরে আমার বাড়িতে হামলা, আমার স্ত্রী ফাতেমা বেগম ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধি ছেলে ইউনুছকে মারধরসহ নানা হুমকি ধমকি দিয়ে আসছিল। আদালতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করায় ক্ষুদ্ধ হয়ে আমার স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে অপহরণ করেছে। ভুক্তভোগী পরিবার মেয়ে উদ্ধারে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অপহরণ, উখিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − twelve =

আরও পড়ুন