কটেজ জোনে বেপরোয়া শহিদ


কক্সবাজার প্রতিনিধি

কক্সবাজার হোটেল-মোটেল জোনের অপ্রতিরোধ্য মাদক ও চিহ্নিত পতিতা ব্যবসায়ী বার্মায়া শহিদ ফের বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

ইতোমধ্যে মাদক নিয়ে আটকের পর কারাগার থেকে বের হয়ে আবারও দেদারসে চালিয়ে যাচ্ছে এসব ঘৃণ্য কাজ। কেউ প্রতিবাদ করতে চাইলে উল্টো মিথ্যা মামলা দিয়ে জড়িয়ে দিবে বলে হুমকি দিচ্ছে। বলতে গেলে তার কাছে জিম্মী হয়ে পড়েছে কক্সবাজার কলাতলি হোটেল-মোটেল ও কটেজ জোন।

সেই শহিদ কটেজ জোনে ইয়াবা ও পতিতা সরবরাহ করে নিয়মিত। বর্তমানে শারমিন কটেজ ভাড়া নিয়ে খুচরা ইয়াবার হাট বসিয়েছে শহিদ। সেখানে নিত্যদিন পাওয়া যায় মদ, গাঁজা ও পতিতা।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন-সেই ঘৃনিত শহিদ এখন কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন এসব অপরাধ কাজ করে। পুলিশের খাতায় অপরাধকাজে তালিকাভুক্ত শারমিন কটেজের ইতিপুর্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করে কটেজ সীলগালাও করেছে। তবুও তিনি আইনকে তোয়াক্কা না করে ইয়াবা-পতিতা ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।
তার বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ রয়েছে-তার রয়েছে ধন-সম্পদ ও আলিশান বাড়ি। কিন্তু তিনি সেই আলিশান বাড়িতে মামলা ও মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে ঘুমাতে পারেননা। সে বর্তমানে কক্সবাজার সরকারী কলেজ গেইট এলাকায় বিভিন্ন ভাড়াবাসায় অবস্থান করছে বলে জানা গেছে।

এব্যাপারে কক্সবাজার সদর মডেল থানার (ওসি) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান-অপরাধী যেহোক না কেন কোনভাবেই পার পাবেনা। অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =

আরও পড়ুন