কেরোসিন আনতে দেরি হওয়ায় ঝলসে দেয়া হলো স্ত্রীকে

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

রামুতে কেরোসিন আনতে দেরি হওয়ায় স্ত্রীর গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ ওঠেছে।

মঙ্গলবার (২৩ আক্টোবর) সকালে রামুর রাজারকুল এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

পাষণ্ড স্বামী নজির আহমদ পালিয়ে গেছে। আহত স্ত্রী মরিয়ম খাতুন (২২) বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার পেট ও পীঠসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে গেছে। নজির আহমদ ওই এলাকার ফজল করিমের ছেলে।

আহত মরিয়ম খাতুন জানান, কাজের প্রয়োজনের কথা বলে তাকে কেরোসিন আনতে বলে স্বামী। তাৎক্ষণিক ঘরের মধ্যে রক্ষিত কেরোসিন আনতে গিয়ে ‘কেন দেরি হয়েছে?’ প্রশ্ন করে ক্ষিপ্ত হয়ে তার মাথায় কেরোসিন ঢেলে দেয়। এরপর দিয়াশলাই দিয়ে আগুন ধরিয়ে তাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে। ইতিমধ্যে তার শরীরের বিভিন্ন অংশ আগুনে ঝলসে গেছে। গুরুতর আহত হয়ে মরিয়ম খাতুন মাটিতে পড়ে যায়। আর্তচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

এ বিষয়ে রামু থানার ওসি মুহাম্মদ আবুল মনসুরের কাছে জানতে চাইলে তাকে ঘটনার বিষয়ে অবগত করানো হয়নি বলে জানান। তবে, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × one =

আরও পড়ুন