খাগড়াছড়িতে ৫ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে সম্পত্তি বিরোধের জেরে আপন চাচাতো ভাইকে অপহরণ করে মুক্তিপন দাবির অভিযোগের মামলায় ৫ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে খাগড়াছড়ি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচার মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন এ রায় দেন। একই সাথে আদালত প্রত্যেক আসামীকে ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড ও অনাদায়ে এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হচ্ছে- মো. ইউনুস (৩৩), মো. ইয়াছিন ওরফে রনি (৩২), নয়ন ধর (৩৪), মো. নিটু ওরফে লিটু (৩৩) ও মো. প্রিন্স ওরফে জনি (৩৪)। এদের মধ্যে মো. প্রিন্স ওরফে জনি পলাতক রয়েছে।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, সম্পত্তি বিরোধের জেরে ২০০৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারি সকালে অংকর ধরের ছেলে খাগড়াছড়ির মহালছড়ি কেজি স্কুল থেকে ফেরার পথে চাচাতো ভাই নয়ন ধর ও তার সহযোগিরা একটি মাইক্রোবাসে করে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে চট্টগ্রামের কদমতলীস্থ একটি বোডিং এ আটকে রেখে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে মোবাইল নাম্বার উল্ল্খে করে একটি চিঠি কালি মন্দিরের সামনে একটি মুদি দোকানে রেছে যায়।

দাবিকৃত মুক্তিপণ ২৪ ঘন্টার মধ্যে পরিশোধ না করলে অপহৃত রাসেল ধরকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।

ছেলে রাসেল ধরকে অপহরণের ঘটনাটি স্থানীয় র‌্যার-৭-কে জানানো হলে ২১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে র‌্যাব-৭ মুক্তিপণ দেওয়ার কথা বলে অপহরণকারীদের যোগাযোগ করে ও চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ চৌমুহনি এলাকায় অভিযান চালিয়ে আসামীদের আটক করে ও আটককৃতদের স্বীকারোক্তিতে রাত সাড়ে ৮টার দিকে পলাকত আসামী প্রিন্স ওরফে জনির বাসায় অভিযান চালিয়ে  অপহৃত রাসেল ধরকে উদ্বার করে।

আসামীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট আলী নূর রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে আপীল করা হবে বলে জানিয়েছেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়িতে ৫ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − nine =

আরও পড়ুন