গুইমারার সিংগুলী পাড়া থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

fec-image

গুইমারা উপজেলার সিংগুলী পাড়া এলাকা থেকে ১ টি এসএমসি (সাব মেশিন কার্বাইন-মেড ইন ইন্ডিয়া) এবং ৬ রাউন্ড তাজা এ্যামুনিশন উদ্ধার করে সিন্দুকছড়ি সেনা জোনের একটি অভিযান দল।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুর ১টায় সিন্দুকছড়ি সেনা জোনের একটি টহল দল তাৎক্ষনিকভাবে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে বলে একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে।

নির্ভরযোগ্য সূত্রটি জানায়, গোপণ সংবাদের ভিত্তিতে গুইমারা উপজেলার সিংগুলী পাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সিন্দুকছড়ি সেনা জোনের একটি অভিযান দল।

আজ বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সন্ত্রাসীদের একটি সশস্ত্র দল পার্বত্য চট্টগ্রামে নাশকতার পরিকল্পনা করার উদ্দেশ্যে ওই এলাকায় একটি গোপন বৈঠকের আয়োজন করেছে বলে গোপণ সংবাদে জানতে পারে অভিযানিক দলটি।

এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে দুপুর ১টায় সিন্দুকছড়ি সেনা জোনের একটি টহল দল তাৎক্ষনিকভাবে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান দল সন্ত্রাসীদের সম্ভাব্য অবস্থান এলাকার কাছাকাছি পৌঁছালে নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীদল অতি দ্রুত এলাকাটি ত্যাগ করে গহীণ জঙ্গলে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে, নিরাপত্তা বাহিনী সন্ত্রাসীদেরকে ধাওয়া করে এবং এলাকাটি ঘেরাও করে তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করে। তল্লাশী শেষে জঙ্গলের ভিতর একটি ব্যাগে ১টি এসএমসি (সাব মেশিন কার্বাইন-মেড ইন ইন্ডিয়া) এবং ৬ রাউন্ড তাজা এ্যামুনিশন উদ্ধার করে। তবে সন্ত্রাসী কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

উদ্ধারকৃত অস্ত্র খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা থানায় জমা করা হয়েছে।

জানা যায়, পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিরোধী আঞ্চলিক সশস্ত্র সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট তথা ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের একটি সশস্ত্র দল দীর্ঘদিন ধরে এই এলাকা ব্যবহার করে তাদের সশস্ত্র কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল।

এব্যাপারে গুইমারা থানার ওসি জানান, আজ দুপুরে সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ অভিযানে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। যেহেতু এগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে তাই এসময় কাউকে আটক করা যায়নি।উদ্ধারকৃত অস্ত্র থানায় জমা করা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের ধরতে ও অস্ত্র উদ্ধারে এমন অভিযান চলমান থাকবে।

এদিকে পার্বত্য চট্টগ্রামে আইন শৃংখলা পরিবেশ স্বাভাবিক ও স্থিতিশীল রেখে শান্তি ও সম্প্রীতির পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষ্যে নিরাপত্তাবাহিনী সর্বদা কাজ করে আসছে। সে লক্ষ্যে খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা সেনা রিজিয়নের নেতৃত্বে তাদের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় বিভিন্ন আঞ্চলিক সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল সমূহের দৌরাত্ম্য রোধ এবং জনমনে শান্তি ও স্বাভাবিক জীবন যাপন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নিরাপত্তা বাহিনী কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়ে থাকে। চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারসহ চাঁদাবাজী বন্ধ এবং অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে প্রায় প্রতিদিনই সন্ত্রাসীদের গোপন আস্থানায় হানা দিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অস্ত্র উদ্ধার, গুইমারা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 5 =

আরও পড়ুন