টানা বৃষ্টিতে কাপ্তাই হ্রদের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাঙামাটি:

গত তিন দিনের টানা বৃষ্টি এবং পাহাড়ি ঢলে রাঙমাটির কাপ্তাই হ্রদের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের কারণে জেলার বরকল ও বিলাইছড়ি উপজেলার বেশ কিছু নিম্নাঞ্চল পানিতে তলিয়ে গেছে।

কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ জানিয়েছে, কাপ্তাই হ্রদের পানির চাপ কমাতে কাপ্তাই বাধের স্পীলওয়ের ১৬টি গেইটের মধ্যে ৮টি গেইট ৬ ইঞ্চি খুলে দিয়ে ৪হাজার কিউসেক পানি কর্ণফুলী নদীতে ছাড়া হচ্ছে।

কাপ্তাই পানি বিদুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী শফি উদ্দীন আহম্মেদ জানান, টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে লেকে পানির পরিমান বৃদ্ধি পেয়েছে।

রুলকার্ভ অনুযায়ী বুধবার (২ জুলাই) সকালে কাপ্তাই লেকে পানির পরিমান রয়েছে ১০০.০০  ফুট মীনস সি লেভেল। কাপ্তাই লেকে পানির ধারন ক্ষমতা ১০৯ মীনস সি লেভেল।

প্রকৌশলী বলেন, কাপ্তাই লেকে ১০৯ ফুট মীনস সি লেভেল পানি ধারন ক্ষমতা থাকলেও ১০০ ফুট মীনস সি লেভেল পানি ধরে রাখলে রাঙামাটি বিশাল এলাকা প্লাবিত হয়। এজন্য কর্তৃপক্ষ হ্রদ থেকে পানি ছেড়ে দিচ্ছে।  তিনি জানান, বৃষ্টি না কমা পর্যন্ত গেইট দিয়ে পানি ছাড়া অব্যাহত থাকবে।

প্রকৌশলী বলেন, কাপ্তাই লেকে ১০৯ ফুট মীনস সি লেভেল পানি ধারন ক্ষমতা থাকলেও ১০০ ফুট মীনস সি লেভেল পানি ধরে রাখলে রাঙামাটি বিশাল এলাকা প্লাবিত হয়। এজন্য কর্তৃপক্ষ হ্রদ থেকে পানি ছেড়ে দিচ্ছে। প্রকৌশলী জানান, বৃষ্টি না কমা পর্যন্ত গেইট দিয়ে পানি ছাড়া অব্যাহত থাকবে।

এদিকে টানা, মাঝারি এবং হালকা বৃষ্টির কারণে রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কে ছোট খাট পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে থাকলেও রাঙামাটির অভ্যন্তরীন সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক রয়েছে। এখনো পর্যন্ত কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে সর্বশেষ বান্দরবান- রাজস্থলী উপজেলা সংযোগ সড়ক এবং রাজস্থলী- রাঙামাটি সংযোগ সড়ক ধসে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ধসে যাওয়া সড়ক মেরামতে সেনাবাহিনী কাজ করে যাচ্ছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − 19 =

আরও পড়ুন