টেকনাফে হরতাল ও অবরোধ চলছে : জ্বালানী তৈল ও কাঁচা বাজারে প্রভাব

মুহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান, টেকনাফ : টেকনাফে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের দেশব্যাপী টানা ৪৮ ঘণ্টা হরতালের দ্বিতীয় দিন শান্তিপূর্ণ ও ঢিলেঢালাভাবে পালিত হয়েছে।  হরতালের পাশাপাশি ১৮ দলীয় জোটের পূর্বঘোষিত অনির্দিষ্টকালের অবরোধও চলছে।

১ জানুয়ারি থেকে লাগাতার এই অবরোধ কর্মসূচি পালন করে আসছে বিরোধী এই জোট। অবরোধ ও হরতালের সমর্থনে এবং বিপক্ষে কোন ধরনের মিছিল মিটিং বা সমাবেশ দেখা যায়নি। কোথাও বিরোধী দলের পিকেটিংও নেই। দূর পাল্লার সকল যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে আঞ্চলিক সড়কে অটো রিক্সা (সিএনজি), চাঁদের গাড়ী (জীপ), রিক্সাসহ ছোট যানবাহন চলাচল স্বভাবিক রয়েছে।

কোথাও কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। হরতাল ও অবরোধের ফলে জ্বালানী তৈল ও কাঁচা বাজারে সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে। জ্বালানী তৈলের দাম ডিজেল প্রতি লিটার ৬৯.৫০ টাকা থেকে ৭৫ টাকা ও অকটেন ১০২ টাকা থেকে ১২০ টাকা বৃদ্ধি করেছে ফিলিং স্টেশনগুলো। এর ফলে ছোট যানবাহনগুলো স্বাভাবিকের চেয়ে ৫ থেকে ১০ টাকা ভাড়া বেশি আদায় করছে যাত্রী সাধারণের কাছ থেকে। এ নিয়ে কোন কোন সময়ে যাত্রী ও গাড়ীর হেলপারদের সহিত ভাড়া নিয়ে তর্ক বিতর্ক ও বাক বিতন্ডার সৃষ্টি হচ্ছে।

অপরদিকে কাঁচা বাজারেও প্রতি কেজিতে তরকারীর দাম ১০ টাকা থেকে ১৫ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গেছে। পাশাপাশি চাউলের বাজারে একই দশা। বস্তা প্রতি ১০০ টাকা থেকে ক্ষেত্র বিশেষে ২৫০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। যাতায়াত ও পরিবহন ভাড়ার অজুহাত দেখিয়ে এসব জিনিসের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এর ফলে সাধারণ মানুষ অত্যন্ত ভোগান্তি ও কষ্টে এবং অসহায়ভাবে দিনাতিপাত করছে।

সরকার ও বিরোধীদলকে এই ধ্বংসাত্মক ও একগুঁয়েমির পথ পরিহার করে শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের আহবান জানান সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ এবং সচেতনমহল।

উল্লেখ্য, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বাতিল করে নির্দিলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে এবং নেতাকর্মীদের হত্যার প্রতিবাদে এসব কর্মসূচি পালন করছে বিরোধী ১৮ দলীয় জোট।

ঘটনাপ্রবাহ: অবরোধ, জ্বালানি সংকট, হরতাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − 1 =

আরও পড়ুন