“ ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ১১ জন ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে ১১ দিনে সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তির সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৬ জনে।”
খাগড়াছড়িতে

ডেঙ্গুর সাথে ম্যালেরিয়ার প্রকোপ, একজনের মৃত্যু, ৫৬জন ডেঙ্গু সনাক্ত

fec-image

খাগড়াছড়িতে ডেঙ্গুর প্রকোপের সাথে যোগ হয়েছে ম্যালেরিয়াও। বৃহস্পতিবার রাতে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জনি ত্রিপুরা(২১) নামে এক ম্যালেরিয়া রোগির মৃত্যু হয়েছে। সে জেলার রামগড় উপজেলার যৌথ খামার এলাকার মৃত জয় ত্রিপুরার ছেলে।

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ১১ জন ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে ১১ দিনে সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তির সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৬ জনে।

আক্রান্তদের মধ্যে অধিকাংশই নারী ও শিশু। সনাক্তদের মধ্যে ৩০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ২৬ ডেঙ্গু রোগী। তার মধ্যে খাগড়াছড়ি জেলা শহরের মধুপুর ও পানখাইয়া পাড়া এলাকায় ২২ জন স্থানীয়ভাবে আক্রান্ত হয়েছে। অন্য আক্রন্তরা ঢাকা ফেরত।

ডেঙ্গু রোগী সামাল দিতে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে আলাদা ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। সরকারি হাসাপাতালে ডেঙ্গু সনাক্তের কিট না থাকায় পরীক্ষার জন্য নির্ভর করতে হচ্ছে বিভিন্ন ডায়াগনিস্টিক সেন্টারে। অপর দিকে ডেঙ্গু সনাক্তের কিট ও চিকিৎসক সংকটের কারণে বাড়তি রোগীর চাপে হিমশীম খাচ্ছে ডাক্তাররা।

খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার নয়নময় ত্রিপুরা জানান, ঈদ-উল আযহায় ঢাকা ফেরত মানুষের কারণে ডেঙ্গু রোগী আরও বাড়ার আশঙ্কা প্রকাশ খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতলে ডেঙ্গু সনাক্তের কোন কিট না থাকায় বাজার থেকে আড়াই থেকে ৩শ টাকা করে কিট সংগ্রহ করতে হচ্ছে।

এদিকে সরকারি হাসাপাতালে ডেঙ্গু সনাক্তের কিট না থাকায় কিট ক্রয়ের জন্য খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী আড়াই লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়িতে, ডেঙ্গুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 4 =

আরও পড়ুন