তাহসানের বিরুদ্ধে তিশা দেওয়ানকে ধর্ষণের অভিযোগ ফেসবুকে ভাইরাল: ফেক পেইজ বললেন শিল্পী

স্টাফ রিপোর্টার:
রাঙামাটির উদীয়মান তারকা শিল্পী তিশা দেওয়ানকে শরবত খাইয়ে ঘুম পাড়িয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ২০ এপ্রিল রাতে তিশা দেওয়ান নামের এক ফেসবুক আইডি থেকে এই পোস্ট করার পর শত শত লাইক কমেন্ট ও শেয়ার হয়।

এদিকে এ ঘটনার পরপরই শিল্পী তিশা দেওয়ান তার নিজের ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট দিয়ে ঘটনাটা সম্পূর্ণ অস্বীকার করে বলেন, অভিযুক্ত আইডিটি ফেক।

উল্লেখ্য, তিশা দেওয়ান নামের আইডি থেকে অভিযোগ করা হয়, ” পৃথিবীতে সবাই স্বার্থপর, বাংলাদেশের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান আমাকে বড় গায়িকা বানানোর প্রলোভন দেখিয়ে, আমার পরিবার থেকে অনুমুতি চেয়ে ঢাকাতে নিয়ে গেছিলো।  আমার আব্বু আম্মু ও সহজ সরল মনে তার হাতে আমাকে তুলে দেই, জঘন্য নরপিষাস তাহসান তার ই সুযোগ নেই,

সেদিন আমাকে শরবত খাইয়ে দিয়েছিল আর সাথে সাথে ঘুমিয়ে যায়. কিছুই মনে রাখতে পারিনী, কয়েকদিন বাদে তাহসান আমাকে মেসেন্জারে একটা ভিডিও পাঠাই, আর তা দেখে আমি মরে যেতে চেয়েছিলাম, কিন্তু পারিনী। ভিডিওটা ইন্টারনেটে ভাইরাল করে দেবে এমন হুমকি দিয়ে আমাকে আবার ঢাকাই নিয়ে যায়, সেখানে সে নিজের ইচ্ছেমত আমাকে ধর্ষণ করে।

আর আজকে ও বলেছিল তার সাথে আমি যেন রাত কাটাই। তাই আর সয্য করতে না পেরে সব কিছু লিখতে বাধ্য হলাম, প্লীজ আপনারা তাহসানের বিচার করে দিন, আমার এই লেখাটি দেখে হয়তো সেই ভিডিওটী ইন্টারনেটে ছড়িয়ে তাহসানের বিচার করে দিন, আমার এই লেখাটি দেখে হয়তো সেই ভিডিওটী ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেবে, কিন্তু এখন আর আমি নিজের জন্য ভাবিনা।
প্লীজ আপনারা সকলেই পোষ্টটি শেয়ার করে ভাইরাল করে দিন, যাতে তাহসানকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে উপযুক্ত শাস্তি দেই।”

এ ঘটনার কিছুক্ষণ পরে তিশা দেওয়ান তার ফেসবুক আইডি থেকে একটি পোস্ট দিয়ে জানান, ‍‌” আমি ঠিক জানি না কে বা কারা এই কাজগুলো করে। এক্সামের জন্য আইডি ডি এক্টিভ ছিলো। যার জন্য এই খবরের হদিস পাই নাই। এতো বাজে ভাবে কোনোদিন কেউ ফেক ইনফরমেশন দিতে পারে কোনোদিন কেউ চিন্তায় করেনি।

আমার সবার কাছে রিকোয়েন্ট দয়া করে পোস্টটা ফেক বলে শেয়ার করে দিন। আমার অফিসিয়ার ফেইজ তিশা ওয়ার্ল্ড. বাকিগুলো সব ফেইক। তাই অন্য কোনো পেইজ বা আইডি থেকে এমন কেনো ইনফরমেশন দিয়ে দয়া করে বিব্রত হবেন না।”

এর দুই ঘণ্টা পর তিশা দেওয়ান নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে আসেন। লাইভে তিনি বলেন, ” সবাইকে নমস্কার। সো বেসিক্যালি আমি খুব একটা লাইভে আসি না তেমন একটা। ইভেন আসিই না। সো আজকে একটা ইমপর্টেন্ট কথা নিয়ে আলোচনা করার জন্য এখানে এসেছি। যদি পসিবল হয়, লাইভটা একটু শেয়ার করে দেন, মানুষ একটু জানুক, আমি কথা বলা শুরু করবো।

… রিসেন্টলি একটা ফেক পেইজ থেকে একটা পোস্ট করা হয়েছে। যেখানে তাহসান ভাইয়ার সাথে আমাকে জড়িয়ে কিছু কথা বলা হয়েছে। এটা অনেক জায়গায়, অনেকভাবে ছড়ানো হয়েছে। তো যে পেইজ থেকে করা হয়েছে, ওইটা আসলে আমার না।

আমার পেইজ হচ্ছে তিশা’স ওয়ার্ল্ড এবং আমার ফেসবুক আইডি হচ্ছে এইটা, তিশা দেওয়ান নামে। বাকি যেসব তিশা দেওয়ান নামে পেইজ আছে সেগুলো হচ্ছে ফেক পেইজ। আমার রিয়েল ফেসবুক পেইজ হচ্ছে তিশা’স ওয়ার্ল্ড।

যারা ওই পোস্টটা নিয়ে এখনো আলোচনা করছেন আমি তাদের কাছে রিকোয়েস্ট করবো, আপনারা ওটা নিয়ে বিভ্রান্তিতে পড়বেন না। ওটা আমার পেইজ না। সো এই হচ্ছে মূলত কথা।

দয়া করে এই লাইভটা একটু শেয়ার করতে পরলে আমার জন্য ভাল হয়। কারণ এই ব্যাপারটা অনেকদুর অব্দি গড়িয়ে গেছে অলরেডি সো আমাকে অনেক জায়গা থেকে কল করা হচ্ছে এটা নিয়ে।

ইভেন আমার এক্সাম চলছে এইচএসি। এইটার জন্য আমি আইডি ডিএক্টিভেট করেছিলাম। একটা দাদা হয়, উনি আমাকে কল করে বিষয়টা জানানোর পর আমি আইডি একটিভ করি”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 + 19 =

আরও পড়ুন