থানচিতে বিদ্যুৎবিহীন ২ দিন; চেরাগই এখন ভরসা

fec-image

টানা ২ দিনের লোডসেডিংয়ে মান্দাতা আমলের চেরাগেই নির্ভরশীল হয়েছে বান্দরবানে থানচি উপজেলা সদরের বাজারের ব্যবসায়ীরা। অনবরত বৃষ্টিতে মেঘলা আকাশ ও সোলার প্যানেলে চার্জিং না হওয়ায় এই অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। এই দিকে থানচি ও বলিপাড়া বাজারের আশে পাশে ৫০টি গ্রামে ২ শতাধিক ফ্রিজের খাদ্য সামগ্রী পঁচে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। হাসপাতালের চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরাসহ সরকারি বেসরকারি অফিসের কাজের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। জনজীবন বিপর্যস্ত।

সরেজমিনে রোববার সদ্ধ্যায় থানচি সদর ঘুরে দেখা যায়,  থানচি বাজারসহ তার আশে পাশে গ্রামগুলিতে অন্ধকার। পুরোনো চেরাগ জ্বালিয়ে তরকারী বিক্রেতা মোহাম্মদ জানে আলম ৫০ জানান, ২ দিন ধরে বিদ্যুৎ নেই। অনবরত বৃষ্টিতে সোলার প্যানেলও চার্জ হয়নি। তাই এখন আমরা চেরাগেই নির্ভরশীল গয়ে আছি। কখন আলো  জ্বলবে কেউ জানে না ।

থানচি ভাত ঘর মালিক মোহাম্মদ সোহেল জানান বিদ্যুৎ না থাকার কারনে ফ্রিজে থাকা সব মাছ মাংস খাদ্য সামগ্রী পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে। অনেক খাবার ফেলে দিতে হয়েছে। এভাবে প্রায় ২৫-৩০টা হোটেল মোটেলে ফ্রিজের থাকা খাদ্য সমাগ্রী ফেলে দেয়া হয়েছে । পাহাড়ে জনপদে উপজেলা সদর হতে অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই কম এবং থাকলে ও পাঁয়ে হাঁটার পথ পেরিয়ে পাহাড়ে এই ঝড় বৃষ্টিতে বাজরে খুব কমই আসেন মানুষ ।

জানতে চাইলে থানচি উপজেলা বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মরত লাইনম্যান অংচিংমং মারমা ও ডিলিপ দাশ জনান, ওয়াই জংশন হতে আমাদের থানচি লাইন সব ঠিক রয়েছে কিন্তু ওয়াই জংশংগের লাইনম্যান আমাদের সংযোগ না দিলে এই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: থানচি, বান্দরবান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 4 =

আরও পড়ুন