দীঘিনালায় উপন্যাস ও কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন নিয়ে ‘সাহিত্য আড্ডা’

দীঘিনালা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি জেলার বিভিন্ন প্রান্তের নতুন প্রজন্মের কবি, সাহিত্যিক এবং সুধীজনদের নিয়ে এক ব্যতিক্রমী আয়োজন “সাহিত্য আড্ডা” অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সাহিত্য আড্ডা’য় কথা সাহিত্যিক আরণ্য সুজন এর উপন্যাস  ‘নিষ্ফলা বুকের জমিন’ এবং কবি রফিকুল ইসলাম এর ‘বৃত্তের বাইরে’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

সোমবার(২১ জানুয়ারি) দীঘিনালা উপজেলার হোটেল ইউনিটি’তে সাহিত্য আড্ডায় বই দুটির মোড়ক উন্মোচন করেন, দীঘিনালা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু।

এসময় সাংবাদিক পলাশ বড়ুয়ার লেখা “ইসলাম এবং শান্তি” শিরোনামে কবিতা সাহিত্য আড্ডায় উপস্থাপন করেন, রাফি পাটোয়ারি।

সাহিত্য আড্ডায় অন্যদের মধ্যে নিজেদের লেখা আরও কবিতা আবৃত্তি ও  উপস্থাপন করেন, কবি সৈয়দ আকরাম, কবি মো. নুরুল ইসলাম, কবি ঝর্না রায়, কবি মো. তারিকুল ইসলামসহ ক্ষুদে লেখক, মো. আইয়ুব আলী,  মো. মহসীন মিয়া, মো. আরিফ, ত্রিশান দত্ত।

পরে সাহিত্য আড্ডায় অতিথিবৃন্দ কথা সাহিত্যিক আরণ্য সুজন এর উপন্যাস ‘নিষ্ফলা বুকের জমিন’ এবং কবি রফিকুল ইসলাম এর ‘বৃত্তের বাইরে’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন।

পরে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় দীঘিনালা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ২নং বোয়ালখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নন্দু কুমার দে, ১নং কবাখালী সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একেএম বদিউজ্জামান, খাগড়াছড়ি ব্লাড ডোনেট এসোসিয়েশন এর সহ-সভাপতি সাহাদাত হোসেন কায়েস, কথা সাহিত্যিক আরণ্য সুজন কবি রফিকুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

দীঘিনালা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু বলেন, খাগড়াছড়ি জেলার মতো একটি প্রত্যন্ত এলাকায় আমাদের মাঝে এতো প্রতিভা লুকিয়ে আছে তা কল্পনাতীত। আজকের সাহিত্য আড্ডায় নতুন প্রজন্মের লেখনী কবিতা এবং প্রবন্ধ উপস্থাপনে আমরা মুগ্ধ, অভিভূত! এসময় তিনি আরও বলেন, আমাদের মাঝে নতুন প্রজন্মের সুপ্ত প্রতিভাকে বিকাশের জন্যে সরকারি বেসরকারি পৃষ্ঠপোষকতার মাধ্যমে সবাইকে এগিয়ে আসা দরকার। এসময় তিনি নতুন প্রজন্মের কবি সাহিত্যিকদের লেখনী শক্তিকে আরও বেগবান করার আহ্বান জানান।

“আরণ্য সুজন এর ‘নিষ্ফলা বুকের জমিন’ এর ৯৬ পৃষ্ঠার উপন্যাসটির মূল্য ধরা হয়েছে ১শত ৮০টাকা এবং কবি রফিকুল ইসলাম এর ‘বৃত্তের বাইরে’ ৬৪ পৃষ্ঠার কাব্যগ্রন্থটির মূল্য ধরা হয়েছে ১শত ৫০টাকা। বই দুটি দীঘিনালা উপজেলার জনতা লাইব্রেরিতে পাওয়া যাবে|

এছাড়া চট্টগ্রাম ও ঢাকার বাতিঘর এবং অনলাইন শপিং ‘রকমারি’ থেকে ‘নিষ্ফলা বুকের জমিন’ উপন্যাসটি ক্রয় করা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen + 2 =

আরও পড়ুন