পেকুয়ায় এক কিশোরীকে গণধর্ষণ, আটক ১

পেকুয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের পেকুয়ায় ১৭ বছরের এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার টইটং ইউনিয়নের ধনিয়াকাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত টইটং ইউনিয়নের ধনিয়াকাটা এলাকার মনজুর আলমের পুত্র আলী হোসেনকে আটক করেছে পুলি্

এছাড়াও কিশোরীর স্বীকারোক্তিমতে প্রধান অভিযুক্ত আবদুল মতলবের পুত্র মিজানুর রহমান, মো. কালুর পুত্র মো. জোনাইদকে আটকের অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানান উপ পরিদর্শক আশিকুর রহমান।

ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানায়, গত মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের সিকদার পাড়া এলাকার ওই কিশোরী টইটং ইউনিয়নের ধনিয়াকাটা এলাকায় তার আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসার জন্য সিএনজিচালিত অটোরিকশায় উঠে। সিএনজি চালক জোনাইদ ও আলী হোসেনসহ আরো কয়েকজন তাকে যথাস্থানে নামিয়ে না দিয়ে বিভিন্নস্থানে ঘোরাঘুরি করে। এক পর্যায়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণকারীরা কিশোরীকে রাত ১ টার দিকে ধনিয়াকাটা পূর্বপাড়ার কবরস্থানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের এক পর্যায়ে চিৎকার করলে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পেকুয়া থানার উপ পরিদর্শক আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে। রাতেই কিশোরীর স্বীকারোক্তিমতে আলী হোসেনকে আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন ভূঁইয়া জানান, কিশোরীকে ধর্ষণের বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ পাঠিয়ে উদ্ধার করি। জড়িত একজনকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × two =

আরও পড়ুন