“আটককৃত রোহিঙ্গার মধ্যে ২৩ জন পুরুষ, ২৯ জন নারী ও ১৫ জন শিশু রয়েছে”
সাগর পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রস্তুতিকালে

পেকুয়ায় শিশু ও নারীসহ ৬৭ রোহিঙ্গা আটক

আটককৃত রোহিঙ্গা

 

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সাগর পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে শিশু ও নারীসহ ৬৭ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাত ১১টার দিকে পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের করিমদাদ মিয়ার ঘাট এলাকা থেকে তাদের আটক করে পেকুয়া থানার এসআই সুমন সরকারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ।

আটককৃত রোহিঙ্গার মধ্যে ২৩ জন পুরুষ, ২৯ জন নারী ও ১৫ জন শিশু রয়েছে। বর্তমানে তাদেরকে পেকুয়া থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার রাত ১১টার দিকে বেশ কয়েকটি মাইক্রোবাসে রোহিঙ্গাদের নিয়ে উজানটিয়ায় যায়। পরে তাদের ইঞ্জিন চালিত বোটে তুলে দিয়ে দালালরা পালিয়ে যায়। তাদের বহনকারী বোটটি মহেশখালী-কুতুবদিয়া চ্যানেলের পেকুয়া উজানটিয়াস্থ করিমদাদ মিয়া ঘাট এলাকায় পৌছে। ওই ঘাটে এতো লোক সমাগম দেখে স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়।

পেকুয়া থানার (এসআই) সুমন সরকার জানান, উজানটিয়া ঘাট এলাকায় প্রচুর লোক জমায়েত হওয়ায় স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া হয়। ওইখানে সাগর পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে শিশু ও নারীসহ ৬৭ জন রোহিঙ্গা ইঞ্জিনচালিত বোটে করে মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। পরে পুলিশ ফোর্স নিয়ে দ্রুত তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসি। তবে এ সময় কোন দালালকে আটক করতে পারিনি।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন ভুঁইয়া বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে শিশু-নারীসহ ৬৭ জন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে। তারা সবাই সাগর পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাচ্ছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে।

তিনি আরও বলেন, এই পাচারের সাথে কারা জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আটক রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: পেকুয়া, মালয়েশিয়া, রোহিঙ্গা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + four =

আরও পড়ুন