বাঘাইছড়িতে বন্যায় প্লাবিত আশ্রয়কেন্দ্রে প্রশাসনের ত্রাণ বিতরন

fec-image

বাঘাইছড়ি উপজেলার টানা ভারিবর্ষনে উপজেলার পৌর এলাকাসহ ৮ ইউনিয়নে শতাধিক গ্রামের নিন্মঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে সাথে যোগযোগ বন্ধ রয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্টানসহ পৌর এলাকায় মধ্যম পাড়া, পুরাতন মারিশ্যা, মুসলিমব্লক, মাদ্রসা পাড়া, এফব্লক, বটতলী, লাল্যঘোনা, বারিবিন্দু ঘাট, তুলাবান, দুরছড়ি, আমতলী এলাকার মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছেন। পানিবন্দি রয়েছে প্রায় দেড় হাজার পরিবারের অধিক।

তলিয়ে গেছে দুইশতাধিক মৎস্য পুকুর, মাছের ঘের। আমন ধানের বীজের চারা ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে আশ্রয় কেন্দ্র থাকা ২৫০ পরিবারের মধ্যে ৮ কেজি করে চাল ও শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়।

গুদামজাত থাকা ত্রাণ ও দূর্যোগ মন্ত্রনালয়ের আপদকালিন চাল, চিড়া, মুড়ি, মসুর ডাল, লবন, বিস্কুট, মেয়াদোত্তীর্ণ হয়। যার মুল্য আনুমানিক পাঁচ লক্ষ টাকার মত। ফলে দুর্যেোগ মোকাবেলায় দ্রুত ত্রাণ বিতরণ করতে উপজেলা প্রশাসন হিমশিম খায়।

উপজেলা নির্বাহি অফিসার আহসান হাবিব জিতু বলেন ইতো:মধ্যে আমরা ২৪ টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলেছি ২৩ টির মত। এতে ২৫০ পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। আমরা চাল ও শুকনো খাবার বিতরণ করেছি। অনেক খাদ্য সামগ্রী মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে। এ বিষয়ে আমি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যাবস্থা নেব।

ঘটনাপ্রবাহ: বর্ষণ, বাঘাইছড়ি উপজেলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − 15 =

আরও পড়ুন