“ ৫দিন পর ছাত্রীকে পাশ্র্ববর্তী আরেকটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়। শুক্রবার ছাত্রীকে নিয়ে বান্দরবান থেকে পালানোর সময় বাসস্ট্যান্ড খেকে যুবককে আটক করা হয়। এবং ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।”

বান্দরবানে নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটক

বান্দরবানে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে আবাসিক হোটেলে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে উশৈসিং মারমা (২৫) নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (৩ মে) এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জেলার রোয়াংছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে অপহরণ করে জেলা শহরের আবাসিক হোটেলে আটকে রেখে ১০দিন ধরে ধর্ষণ করা হয়েছে। খবর পেয়ে ছাত্রীকে নিয়ে বান্দরবান ছেড়ে পালানোর সময় শহরের বাসষ্ট্যান্ড থেকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অপহরণ- ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবক আটক করা আটক করা হয়েছে।

আটক যুবকের নাম উশৈসিং মারমা (২৫)। তার বাড়ি রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের ঘেরাউমুখ পাড়ায়। বাবার নাম অংশৈনু মারমা

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রোয়াংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শরিফুল ইসলাম জানান, গত ২৩ এপ্রিল ছাত্রীকে রোয়াংছড়ি বাসস্ট্যান্ড থেকে বেড়াতে নেয়ার কথা বলে কৌশলে বান্দরবান শহরে নিয়ে আসে। পরে শহরের একটি আবাসিক হোটেলে ছাত্রীকে নিয়ে তোলে যুবক। সেখান থেকে ৫দিন পর ছাত্রীকে পাশ্র্ববর্তী আরেকটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়। শুক্রবার ছাত্রীকে নিয়ে বান্দরবান থেকে পালানোর সময় বাসস্ট্যান্ড খেকে যুবককে আটক করা হয়। এবং ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় রোয়াংছড়ি থানায় যুবকের বিরুদ্ধে অপহরণ এবং ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক, ধর্ষণ, বান্দরবান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 3 =

আরও পড়ুন