“মানববন্ধনে শ্রমিকদের আসতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে আকিজ বিড়ি কোম্পানীর বিরুদ্ধে।”
আকিজ বিড়ি কোম্পানীর বিরুদ্ধে শ্রমিকদের নিয়ে

বান্দরবানে মানববন্ধনে বাধ্য করার অভিযোগ

ধুমপায়ী শ্রমিকদের মানববন্ধন

 

বান্দরবানে মন্ত্রীর বাড়ির সামনে রোজাদার শ্রমিকদের রোদে দাঁড় করিয়ে আকিজ বিড়ি কোম্পানীর মানববন্ধন আয়োজন নিয়ে এলাকায় নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

বিড়ির মূল্য বৃদ্ধি না করার দাবি জানিয়ে এই মানববন্ধনে শ্রমিকদের আসতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে আকিজ বিড়ি কোম্পানীর বিরুদ্ধে।

সোমবার (১৩ মে) পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির বান্দরবান বাসভবনের সামনে বিকাল ৩টা থেকে ঘন্টাব্যপী এই মানববন্ধধন চলে।

এ সময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিড়ি ভোক্তা সমিতির সভাপতি এস এম মোস্তাকিন জনি, আকিজ বিড়ি কোম্পানীর বান্দরবান জেলা সমন্বয়কারী মো. ফারুক হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক রেমং মার্মা প্রমুখ।

এ বিষয়ে শ্রমিকরা জানায়, তাদেরকে আকিজ বিড়ি কোম্পানীর লোকজন কড়া রোদে দাঁড়াতে বাধ্য করেছে। তারা আরো বলেন, কয়েকদিন ধরে বান্দরবানসহ সারা দেশে প্রচন্ড গরম পড়েছে। গরমে ঘর থেকে পর্যন্ত বের হওয়া যাচ্ছেনা। এর মধ্যে আবার অনেকে রোজাও রেখেছেন। আর ঠিক এ মূহুর্তে তাদের রোদে দাঁড়িয়ে মানববন্ধনে বাধ্য করা হয়েছে।

এবিষয়ে কয়েকজন শ্রমিক জানায়, আকিজ বিড়ি কোম্পানীর অফিসাররাও মানববন্ধনে ছিল। তারা আমরা রোজা রেখেছি জানার পরও আমাদের বাধ্য করেছে মানববন্ধন করতে। তবে দীর্ঘ সময় আমাদের কড়া রোদে মানববন্ধনে দাঁড় করিয়ে রাখায় অনেক শ্রমিক অসুস্থ হয়ে গেছে। আবার অনেকের রোজাও ভেঙ্গে ফেলতে হয়েছে।

বান্দরবানের আবদুর রহিম বলেন, পবিত্র রোজার মাসে রোজাদার শ্রমিকদের রোদে দাঁড় করিয়ে মানববন্ধন করানোটা বিড়ি কোম্পানীদের ঠিক হয়নি। এসময় তিনি বিষয়টি তদন্ত করে দোষীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে আকিজ বিড়ি ভোক্তা সমিতির দক্ষিণ চট্টগ্রামের সভাপতি এসএম মোস্তাকিন জনির কাছ থেকে কড়া রোদে রোজাদার শ্রমিকদের দাঁড় করিয়ে মানববন্ধণের কারণ জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি নিয়ে পরে কথা বলবেন বলে মুঠো ফোনের লাইন কেটে দেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ, বান্দরবানে, মানববন্ধনে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 + two =

আরও পড়ুন