দীঘিনালার বাবুছড়ায় বিজিবি জোন সদরে উপজাতিদের হামলা: আহত ২০

Today's pic(1)

পার্বত্যনিউজ রিপোর্ট:

খাগড়াছড়ি’রর দীঘিনালায় নবগঠিত ৫১ বিজিবি’র জোন সদরে উপজাতিরা হামলা করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিবষর্ণ ও টিয়ার শেল করেছে। এতে বিজিবি’র ৬ সদস্যসহ ২০ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, বিকেলে বিজিবি সদস্যরা ক্যাম্প স্থাপনের কাজ করার সময় স্থানীয় উপজাতিরা বাধা দেয়। এসময় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় আশপাশ থেকে উপজিাতিরা এসে বিজিবি সদস্যদের উপর হামলা করে। খবর পেয়ে পুলিশ স্থানীয়দের ছত্রভঙ্গ করতে কয়েক রাউন্ড গুলি ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। বর্তমানে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র বাবুছড়া জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর কামাল হোসেন পার্বত্যনিউজকে বলেন, অনুমানি ছয়টার দিকে ১৫০-১৮০ জনের একদল উপজাতী বিজিবি’র সদস্যদের উপর হামলা করে। এতে পুলিশের এক সদস্যসহ ৬ জন বিজিবি’র সদস্য আহত হয়।

এ ঘটনায় আহত বিজিবি ও পুলিশ সদস্যরা হলো, কনস্টেবল মাহাবুব আলম, সিগনাল ম্যান অশুক, ল্যান্স নায়েক উত্তম কুমার, দর্জি আসলাম হোসেন, ভাভার মনির হোসেন ও পুলিশ সদস্য এ বি সিদ্দিক।

উপজাতি আহতরা হলেন- সংঘ দেবী চাকমা(৪৫), স্বামী সুরজয় চাকমা, গ্রাম- যত্নমোহন কার্বারী পাড়া, অপসরি চাকমা (১৬), পিতা সুখময় চাকমা, গ্রাম- মধ্য বাঘাইছড়ি, সুরভি চাকমা (৪০), স্বামী- শুক্রমোহন চাকমা, গ্রাম যত্ন মোহন কার্বারী পাড়া, ফুলরাণী চাকমা (৪৫) স্বামী- স্নেহ কুমার চাকমা, গ্রাম- ঐ, ৫. মধুরিকা চাকমা (৩০), পিতা-নোয়ারাম চামা, গ্রাম-মধ্য বাঘইছড়ি, আনন্দ বালা চাকমা (৫৫), স্বামী মৃত. কমল কুমার চাকমা, সন্তোষ কুমার কার্বারী (৭৫) পিতা মৃত শশী মোহন কার্বারী, গ্রাম শশী মোহন কার্বারী পাড়া, সোনা দেবী চাকমা(৪০), স্বামী- সুরজয় চাকমা, গ্রাম যত্ন মোহন কার্বারী পাড়া, কমলা রঞ্জন চাকমা (৩২), পিতা- সুরজয় চাকমা, গ্রাম-ঐ,  চাহেলী চাকমা (২৫) ,স্বামী- কমলা রঞ্জন চাকমা,  প্রদীপ চাকমা (৬৫), পিতা মৃত ভগবান চন্দ্র চাকমা, গ্রাম- ঐ,  মায়া রাণী চাকমা(৫৫), স্বামী- প্রদীপ চাকমা, সাধন দেবী চাকমা (৬০), স্বামী- মঙ্গল চাকমা,  সুরর্ণা চাকমা(২৬), স্বামী- শ্যামল চাকমা, গ্রাম যত্ন মোহন কার্বারী পাড়া, শ্যামলিকা চাকমা (৩৫), স্বামী- বিনি মোহন চাকমা, গ্রাম-ঐ ও  গোপা চাকমা(৪০), স্বামী- শুভময় চাকমা। আহতদের দিঘীনালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দিঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহাদাত হোসেন এ ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সহকারী পুলিশ সুপার সরোয়ার হোসেন (সদর সার্কেল) জানান, বিকেলে ৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের সদস্যরা বাবুছড়িতে ক্যাম্প স্থাপনের কাজ করার সময় স্থানীয়রা বাধা দেয় এবং সীমানা ফ্লাগ তুলে নেয়। এরপর আরো বেশ কিছু স্থানীয় জনতা এসে বিজিবি সদস্যদের ওপর দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে হামলা ও ভাঙচুর করে। তাদের দায়ের কোপে বিজিবির দুটি চাইনিজ রাইফেল কেটে যায়।

উল্লেখ্য, দীঘিনালার নাড়াইছড়ি এলাকায় ভারতের সাথে বাংলাদেশের ১২৯ কিঃমিঃ সীমান্ত অরক্ষিত রয়েছে। তা বিজিবি’র নিয়ন্ত্রণে পাহারায় আনতে নতুন ব্যাটালিয়ন সৃষ্টি করেছে সরকার। ৩টি বাটালিয়ন ১২৯ কিঃ মিঃ সীমান্ত চৌকি পাহারা দেবে। এর মধ্যে বাবুছড়া ৫১ ব্যাটালিয়ন সীমান্ত এলাকায় বিওপি করে চৌকি দেবে ৪৭ কিঃ মিঃ সীমান্ত। গত মাসের ১৫ তারিখে বিজিবি সদর দফতরটি স্থাপন করা হয়। শুরু থেকে পাহাড়িদের একটি অংশ বিজিবি সদর দফরের কার্যক্রম বন্ধে মিছিল সমাবেশসহ আন্দোলন করে আসছিল। গতকাল এ বিষয়টি নিয়ে পাহাড়ী প্রতিনিধিদের সাথে বিজিবি কর্মকর্তাদের একটি সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।  বৈঠকে বিজিবি কর্মকর্তারা জানান, অধিগ্রহনের জন্য প্রস্তাবিত জায়গার যে অংশ নিয়ে আদালতে রীট আবেদন করেছে সে জায়গা বাদ দিয়ে জেলা প্রশাসন বিজিবিকে জায়গা হস্তান্তর করেছে।

 
ঘটনাপ্রবাহ: উপজাতি, দিঘীনালা, পার্বত্যনিউজ

One Reply to “দীঘিনালার বাবুছড়ায় বিজিবি জোন সদরে উপজাতিদের হামলা: আহত ২০”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − 8 =

আরও পড়ুন