ভারত-ইংল্যান্ড যাচ্ছেন শেখ হাসিনা

fec-image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত ও ইংল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন। আগামী ৩ থেকে ৪ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে অংশ নেবেন তিনি। এছাড়া আগামী ২০ জুলাই লন্ডনে ইউরোপে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

চীনের দালিয়ানে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম আয়োজিত সামার ডাভোসে অংশগ্রহণসহ ৫ দিনের সরকারি সফর শেষে শনিবার (৬ জুলাই) দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী।

ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে ৪টি থিম্যাটিক বিষয়ের ওপর আলোচনা হবে। সেগুলো হচ্ছে নতুন ভূরাজনৈতিক বাস্তবতা, নতুন সামাজিক ব্যবস্থা, নতুন পরিবেশগত ব্যবস্থা এবং নতুন প্রযুক্তিগত ব্যবস্থা। ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, শেখ হাসিনা নতুন সামাজিক ব্যবস্থা থিম্যাটিক আলোচনার কো-চেয়ার হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘সফরের প্রাথমিক প্রস্তুতি আমাদের আছে।’

সরকারের আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, ‘ওই অনুষ্ঠানে একটি প্রোগ্রাম শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যৌথভাবে কো-চেয়ার থাকতে পারেন।’

দক্ষিণ এশিয়া ও আসিয়ানের মধ্যে কীভাবে সম্পর্ক বৃদ্ধি করা যায়, সেটি নিয়ে ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিটে বিশেষভাবে আলোচনা হবে।

২০১৭ সালে ঢাকায় প্রথম রাষ্ট্রদূত কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। গত এপ্রিলে দ্বিতীয় কনফারেন্স হওয়ার কথা থাকলেও সেটি পিছিয়ে যায়।

এবারে সিদ্ধান্ত হয়েছে শুধুমাত্র ইউরোপের ১৫ জন রাষ্ট্রদূতকে নিয়ে লন্ডনে এনভয় কনফারেন্স করবেন প্রধানমন্ত্রী।

একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। এবারে উন্নয়ন, অর্থনৈতিক কূটনীতি ও রোহিঙ্গাসহ অন্যান্য বিষয়ে সরকারের দিকনির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী।’

বর্তমান সরকার ইউরোপের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে চায় এবং এক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান কী হবে, রাষ্ট্রদূতদের অভিমতও প্রধানমন্ত্রী শুনবেন বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, অঞ্চলভিত্তিক আরও এনভয় কনফারেন্স হওয়ার সম্ভাবনা আছে ভবিষ্যতে।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী, শেখ হাসিনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + 5 =

আরও পড়ুন