মতামত প্রকাশে অধিকার সবারই আছে : ন্যান্সি

ঢাকা : যে কোনো বিষয়ে পক্ষে বিপক্ষে মতামত প্রকাশে অধিকার সবারই আছে বলে মন্তব্য করেছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি। তিনি বলেন, ‘কিন্তু সেই মত প্রকাশের জের ধরে কাউকে হয়রানি করা গণতন্ত্রবিরোধী কর্মকাণ্ডের শামিল।’

জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআপি লাউঞ্জে বৃহস্পতিবার ১২টায় সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। নেত্রকোনায় নিজ বাড়িতে পুলিশি অভিযানের প্রতিবাদে তিনি এ সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ‘বাড়ি তল্লাশির পর পুলিশ হয়তো আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিতে পারে। তাদের উদ্দেশ্য- যে করেই হোক আমাকে হয়রানি করা।’ সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে তিনি বলেন, ‘আমি গানের মানুষ। আপনাদের প্রতিবেদনে আমার গানের কথা থাকে। কিন্তু আজকে অন্য কিছু কথা বলতে হচ্ছে। এজন্য আমি বিব্রত।’

জনপ্রিয় এই সংগীতশিল্পী বলেন, ‘আপনারা সবাই জানেন আমি কিছুদিন আগে ফেইসবুকে কিছু কথা লেখেছি। শিল্পীর বাইরে আমরা মানুষ। খুব স্বাভাবিক বিষয় হচ্ছে আমাদেরও কোনো রাজনৈতিক দলকে ভালো লাগতে পারে। দশজনের মতো এটা আমার গণতান্ত্রিক অধিকার। সবারেই একটা রাজনৈতিক ভিউ থাকতে পারে। এটা দোষের কিছু নয়।’

তিনি বলেন, ‘স্টাটাস্য পর থেকে বিভিন্ন স্থান থেকে হুমকি-ধমকি পাচ্ছি। এটাকে আমি পাত্তা দেইনি। কিন্তু গত মঙ্গলবার মাঝরাতে পুলিশ আমার নেত্রকোনা বাড়িতে (সেখানে কেউ থাকে না) তল্লাশি করতে যায়।’

জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত এই শিল্পী বলেন, ‘পুলিশ আমাকে বলে- তারা আমার বাড়ি তল্লাশি করবে। কারণ হিসেবে বলে- আমি দুর্বৃত্ত-সন্ত্রাসীদের আশ্রয়দাতা। পুলিশকে আমি বুঝানোর চেষ্টা করি, কিন্তু তারা আমার কোন কথা শুনেনি।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘পুলিশ হুমকি দিয়ে বলে আমাকে গ্রেপ্তার করবে। অভিযানের নেতৃত্বে থাকা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর আমাকে মুঠোফোনে বেশ আপত্তিকর কিছু কথা বলে।’

ন্যান্সি আক্ষেপের সুরে বলেন, ‘আমি গত সাত বছর ধরে গান করি, তখন আমার কোনো দোষ ছিলো না। একটা স্ট্যাটাস দেওয়ার পর অনেক দোষ করে ফেলেছি। পুলিশি অভিযানের পর কেউ কেউ আমাকে পরামর্শ দিয়েছি জিডি করতে। কিন্তু কার কাছে আমি জিডি করবো? তারা কী নিজেদের বিরুদ্ধে জিডি নিবে?’

তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ‘বাড়িতে তল্লাশি চালানোর পর তারা হয়তো এখন আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করতে পারে। এখন আমি ভীত, আতঙ্কিত। দেশবাসীর কাছে সহযোগিতা চাই।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট চলচ্চিত্রকার চাষী নজরুল ইসলাম, জাসাস সভাপতি আবদুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক কণ্ঠশিল্পী মনির খান, উপদেষ্টা রেজিয়া পারভীন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শামসুদ্দিন দিদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জাসাস সাধারণ সম্পাদক আরিফুজ্জামান মামুন প্রমুখ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =

আরও পড়ুন