“অপহরণকারীরা আব্দুল মোনাফকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পাশের পাহাড়ের ভিতরে নিয়া যায়।”

মহেশখালীতে দুই অপহরণকারী অস্ত্রসহ আটক

মহেশখালীতে দুই অপহরণকারী

 

মহেশখালীতে দুই অপহরণকারীকে অস্ত্র ও গুলি সহ আটক করেছে পুলিশ।

মহেশখালী থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে কালারমারছড়ার পাহাড়ি এলাকা থেকে তাদের আটক করে।

মহেশখালী থানা সূত্রে জানাযায়,  গত ৬ এপ্রিল সন্ধায়  মহেশখালী থানাধীন হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া গ্রামের মো. ইউসুফ, তার ছেলে আব্দুল মোনাফ ও তার মেয়ের জামাই শাহাদাত উল্লাহ সহ বদরখালী থেকে সিএনজি যোগে আসার সময় মহেশখালী থানাধীন শাপলাপুর ইউনিয়নস্থ বালুর ডেইল নামক স্থানে আসলে ৮/৯ জন অপহরণকারী তাদের সিএনজির গতিরোধ করে সিএনজি থেকে তাদেরকে নামিয়ে ফেলে।

একপর্যায়ে তাদের ৩ জনকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে অপহরণ করতে চাইলে তখন ইউসুফ ও তার মেয়ে জামাই বাঁচাও বাঁচাও বলে দৌড়ে পালিয়ে গেলেও অপহরণকারীরা আব্দুল মোনাফকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পাশের পাহাড়ের ভিতরে নিয়া যায়।

অতঃপর আব্দুল মোনাফ এর মায়ের নিকট মুক্তিপণ হিসাবে ৫ লক্ষ টাকা দাবি করে এবং মুক্তিপনের টাকা কালারমারছড়া ইউনিয়নের ফকিরজোম পাড়ার পাহাড়ের ভিতরে নিয়া যাওয়ার জন্য বলে।

ঘটনাটি আব্দুল মোনাফ এর মা ও বাবা মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জকে জানালে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রভাষ চন্দ্র ধর, পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) একেএম সফিকুল আলম চৌধুরী এর নেতৃত্বে এসআই লিটন চন্দ্র সিংহ এবং এএসআই জুয়েল দে ও সঙ্গীয় ফোর্স সহ ভিকটিমের আত্মীয়স্বজন এর ছদ্মবেশে মুক্তি পণের টাকা নিয়ে কালারমারছড়া ইউনিয়নের ফকিরজোম পাড়ার পাহাড়ের ভিতর থেকে আব্দুল মোনাফকে উদ্ধার করে।

এসময় অপহরণকারীদের সহযোগীরা পাশের পাহাড় থেকে গুলি বর্ষণ করতে থাকে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে। একপর্যায়ে অপহরণকারীদের  হেফাজত থেকে ০১টি এলজি, ০৬ রাউন্ড কার্তুজ ও ০১টি গুলি রাখার ব্যাগ সহ এবং অপহরণকারী  থেকে ০১টি এলজি ও ০২ রাউন্ড কার্তুজ সহ হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

অপহরণকারী রুহুল কাদের রুহুইল্যা(৩০), পিতা-মো. আমিন, সাং-মোহাম্মদ শাহঘোনা, কালারমারছড়া, ২। আজিজ(২৮), পিতা-ওসমান, সাং-অফিস পাড়া, কালারমারছড়া বাসিন্দা।

ঘটনাপ্রবাহ: অপহরণকারী, অস্ত্রসহ, আটক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two + 8 =

আরও পড়ুন