মহেশখালীতে পরকিয়ায় বাঁধা দেয়ায় স্বামীকে খুন!

fec-image

স্ত্রীকে পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় শশুর বাড়িতে শালা, শাশুড়ি, স্ত্রী ও স্ত্রীর প্রেমিকসহ কয়েক জন মিলে লাথি, কিল, ঘুষি ও ছুরিকাঘাতে আব্দুল মান্নান (৩৩) নামে এক ব্যক্তিকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করেছে নিহতের পরিবার।

তিনি মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়নের ষাইটমারা এলাকার মকবুল আহমদের পু্ত্র।   ১ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) সন্ধা ৭টায় দক্ষিণ ষাইটমারা তার শশুর বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, দক্ষিণ ষাইটমারা এলাকার সুমি আকতারকে বিয়ে করে আবদুল মান্নান। বিয়ের প্রথম দিকে তারা দুই জন স্বামী-স্ত্রী ভাল মত সংসার করলেও গত কয়েক মাস ধরে মান্নানের স্ত্রী সুমি আকতার স্থানীয় বাবুল নামের এক ছেলের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। এর জের ধরে গত কয়েক দিন যাবৎ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনো-মালিন্য চলছিল । একারণে সুমি আকতার তার বাপের বাড়িতে চলে যায়।

এরই মধ্যে মান্নানের স্ত্রী সুমির ফোন পেয়ে স্বামী মান্নান গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধায় তার শশুর বাড়িতে যান। সেখানে তার স্ত্রী সুমি আকতার এবং বাবুল নামের প্রেমিককে অসামাজিক কাজে দেখলে এর প্রতিবাদ করায় স্ত্রী ক্ষুব্ধ হয়ে তার কথিত প্রেমিকসহ মান্নানের শশুর বাড়ীর লোকজন মিলে মান্নান কে মারধর করে। এক পর্যায়ে মান্নান অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে স্থানীয় লোকজন ও তার আত্বীয় স্বজন মান্নানকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউপি সদস্য মামুন জানান, স্ত্রীর পরকিয়ার কাজে বাঁধা দেয়ার কারণে স্বামী-স্ত্রীর উভয়ের তর্কাতর্কিতে স্ত্রী ও শশুর বাড়ীর লোকজনসহ মান্নানকে মারধর করে আহত করে । পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে মান্নানের মৃত্যু হয় বলে জানান তিনি ।

বর্তমানে লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে বলে জানা গেছে । লাশের ময়না তদন্ত শেষে তাকে শাপলাপুরের ষাইটমারা নিজ গ্রামে দাফন করা হবে ।

এদিকে নিহত ব্যক্তির পরিবার একটি হত্যা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খুন, পরকিয়ায়, মহেশখালীতে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − five =

আরও পড়ুন