মায়ের দুধের মাধ্যমে শিশুরা ভিটামিন ‘এ’ পেয়ে থাকে

fec-image

জন্মের পর থেকে ৬ মাস পর্যন্ত শিশুরা মায়ের দুধের মাধ্যমে ভিটামিন ‘এ’ পেয়ে থাকে। নবজাতককে শিশুকে ৬ মাস পর্যন্ত শালদুধসহ মায়ের দুধ খাওয়াতে হবে এবং পানি, মধু, চিনি বা মিসরির পানি ইত্যাদি খাওয়ানো যাবে না।

বুধবার (১৯ জুন ) সকালে রাঙ্গামাটি সিভিল সার্জন সম্মেলন কক্ষে স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে আগামী ২২ জুন শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে রাঙ্গামাটির ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ নীহার রঞ্জন নন্দী এ সব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, শিশুর বয়স ৬ মাস পূর্ণ হলে মায়ের দুধের পাশাপাশি পরিমাণ মত ঘরে তৈরি সুষম খাবার  খাওয়াতে হবে এবং ৬ মাস থেকে ১ বছর পর্যন্ত শিশুদের প্যাকেটজাত খাবার থেকে দূরে রাখতে হবে।

দীর্ঘমেয়াদি ডায়রিয়া, হাম ও মারাত্মক অপুষ্টিতে আক্রান্ত শিশুকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়াতে হবে এবং আগামী ২২ জুন রাঙ্গামাটির সকল উপজেলায় ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুকে ১টি নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুকে ১ টি লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, এবার রাঙ্গামাটিতে প্রথম রাউন্ডে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুর লক্ষ্যমাত্রা ৯ হাজার ১শত ৮৮ জন এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুর লক্ষ্যমাত্রা ৭০ হাজার ৬ শত ৯৬ জন। মোট শিশুর লক্ষ্যমাত্রা ৭৯ হাজার ৮শত ৮৪ জন এবং ৯৯ দশমিক ১৪ %।

এ সময় সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাকসুদুর রহমান, দৈনিক গিরিদর্পণ পত্রিকার সম্পাদক একেএম মকসুদ আহমেদ, দৈনিক রাঙ্গামাটি পত্রিকার সম্পাদক মোঃ আনোয়ার আল হক প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight + 20 =

আরও পড়ুন