নাইক্ষ্যংছড়িতে বিজিপির পোশাক পরা মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি:

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ভাল্লুকখাইয়া সীমান্ত থেকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর এক সদস্যকে জনতার সহায়তায় আটক করেছে বিজিবি। আটককৃত ওই সেনা সদস্যের নাম অং বো থিন(৩০)। তার বাড়ি মিয়ানমারের ইয়াংগুনে। তার বাবার নাম ইউ মাই থিং।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ভাল্লুখ খাইয়া বিজিবি ক্যাম্পের প্রায় সাত’শ গজ পূর্ব-দক্ষিণে ৪৯নং সীমান্ত পিলারের দক্ষিণ-পূর্ব কোণে আনুমানিক ৩.৫ কি. মি. অভ্যন্তরে বাম হাতির ছড়া নামক স্থান থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত মিয়ানমার সেনা সদস্যের পরনে বিজিপির ইউনিফর্ম ছিল।

প্রাথমিক জিঙ্গাসাবাদে সে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর এল.আই.বি- ২৮৭ ব্যাটালিয়নের সদস্য এবং সে গত এক বছর পূর্বে কাচিন প্রদেশ থেকে বান্ডুলাতে বদলি হয়ে আসেন বলে স্বীকার করেন। বর্তমান তিনি বান্ডুলা ৫০ ক্যাম্পে দায়িত্বরত। তাকে বিজিপিতে প্রেষণে নিয়োগ করা হয়েছে।

গত ২২/০১/১৯ তারিখ আনুমানিক ১৭.৪৫ ঘটিকার সময় বাংলাদেশ সীমান্ত পিলার ৪৯ লেম্বুছড়ি এলাকা দিয়ে কালর্ভাট এর নিচ দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, গত ২২/১/১৯ তারিখে বান্ডুলা ক্যাম্পে তাকে কাজ করার জন্য বলেন এবং সে কাজ করতে অপরাগতা প্রকাশ করেন, আর এই জন্য সে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। গত দুইদিন যাবৎ পাহাড়ে পাহাড়ে ঘুরাফেরা করেন এবং আজকে স্থানীয় লোকজন তাকে ধরে ফেলেন। ধরার সময় সে অসুস্থ ও মদ্যপ অবস্থায় ছিলো। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে। বর্তমানে আটকৃত ব্যক্তি ১১ বিজিবি জোন সদরে অবস্হান করছে।

এ বিষয়ে বিজিবির কক্সবাজার সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল বায়েজিদ খান পার্বত্যনিউজকে জানান, জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত ব্যক্তি নিজেকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্য বলে জানিয়েছে। বেন্ডুলা ক্যাম্পে কাজ ভাল না লাগায় সে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে বলে জানিয়েছে। তবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমরা এতোদিন জানতাম মিয়ানমার সীমান্তে বিজিপি সদস্যরা থাকে। তাদের পেছনে সেনাবাহিনী থাকে। কিন্তু এই সদস্য ধরা পড়ার পর দেখছি, সীমান্তে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে এবং তারা বিজিপির পোশাক পরে দায়িত্ব পালন করছে।

এদিকে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকাল থেকে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও আরাকান আর্মির মধ্যে নতুন করে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়েছে। রাখাইনেই কিয়াকতাও এলাকা ও বাংলাদেশে সীমান্তের ৪১-৪২ নং পিলারের উল্টোদিক থেকে থেমে থেমে গুলি বিনিময়ের শব্দ শোনা যাচ্ছে থেমে থেমে সারাদিন ধরেই।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক, নাইক্ষ্যংছড়ি, মিয়ানমার সেনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 + 7 =

আরও পড়ুন