বান্দরবানে আওয়ামী লীগ নেতা হত্যার ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই

রাজস্থলীতে আ’লীগের নেতাকে গুলি করে হত্যা

fec-image

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় আ’লীগের নেতা চংক্লা চিং মারমা (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার (১৯ মে) রাত ১১টার দিকে বাঙালহালিয়া ইউনিয়নের নাইক্ষংছড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত চংক্লা চিং বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাতে একদল সশস্ত্র গ্রুপ বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের সভাপতি চংক্লা চিং মারমাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গুলি করে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে আ’লীগের এ নেতার মৃত্যু ঘটে। তবে কারা এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত তা বিস্তারিত কেউ জানাতে পারিনি। তবে স্থানীয় আঞ্চলিক সশস্ত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে তাকে হুমকি দেয়া হচ্ছিল বলে জানা গেছে।

বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ঞিয়োমং মারমা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল স্থানীয় প্রশাসন ঘিরে রেখেছে। এলাকায় এখন থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনী ও পুলিশের টিম গেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রাঙামাটি জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত চংক্লা চিং মারমা যুবলীগের কেউ নন, তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা।

চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফ জানিয়েছেন, আমরা ঘটনাটি শুনেই ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি টিমকে পাঠিয়েছি। তারা ফিরে আসলে ঘটনার বিস্তারিত বলা যাবে।

বান্দরবানে আওয়ামী লীগ নেতা হত্যার ২৪ ঘণ্টা পর হতে না হতেই এ ঘটনা ঘটলো। উল্লেখ্য, ১৯ মে আনুমানিক দেড়টার দিকে সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ৮নং রাবার বাগান এলাকায় রাজবিলা ইউনিয়নের আ.লীগের সহ-সভাপতি চাই পা অং এর ভাই ক্য চিং থোয়াই (২৬) হত্যা করা হয়।

নিহত ক্য চিং আওয়ামী লীগ করতেন বলে জানা গেছে। সন্ত্রাসীরা তার ভাই স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকে না পেয়ে তাকে খুন করে বলে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − seven =

আরও পড়ুন