শাহপরীরদ্বীপ ঘাটে আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

fec-image

টেকনাফের শাহাপরীরদ্বীপের জেটি ঘাটের জেলা পরিষদের টাকা আত্মসাৎ করা হচ্ছে। গত দেড় মাসে জেলা পরিষদের প্রায় ১০ লাখ টাকার আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। কোন ধরনের অনুমোদন ছাড়া কক্সবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর জাল করে জেটি ঘাট থেকে টাকা উত্তোলন করছে আওয়ামী লীগ নেতা সোনা আলী। জেটিঘাট থেকে খাস কালেকশানের জন্য সোনা আলীর কাছে জেলা পরিষদের কোন কোন অনুমোদন বা বৈধতা নেই।

কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী হিল্লোল বিশ্বাস জানিয়েছেন, শাহপরীরদ্বীপ জেটি ঘাট ১৪২৬ সনের জন্য এখনো কাউকে ইজারা দেয়া হয়নি। এই জেটির এখনো দরপত্র আহবানের প্রক্রিয়া চলছে। এমনকি ঘাটের টাকা সংগ্রহের জন্য কাউকে অনুমতিও দেয়া হয়নি। সোনা আলী নামের কাউকেও জেলা পরিষদের পক্ষে শাহপরীরদ্বীপ জেটির টাকা উত্তোলনে জেলা পরিষদ অনুমোদন দেননি।

কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী আরও জানান, ১লা বৈশাখ ১৪২৬ বাংলা সন  থেকে যারা এই ঘাট দিয়ে মিয়ানমার থেকে  গরু আমদানি করেছেন, তাদের তালিকা সংগ্রহ করা হচ্ছে। জেলা পরিষদের সরকারী রাজস্বের টাকা ঐসব আমদানীকারকদের কাছ থেকে আদায় করা হবে।

সোনা আলীর কাছে বৈধ কাগজ না থাকায়  শাহপরীরদ্বীপের জেটি দিয়ে আমদানীকারকদের প্রতারিত না হওয়ার জন্য সতর্ক থাকার আহবান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − six =

আরও পড়ুন