শেখ হাসিনা আবার ক্ষমতায় আসলে বদলে যাবে চকরিয়া-পেকুয়ার চেহারা: জাফর আলম

চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে আওয়ামী লীগের (মহাজোট) প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম বলেছেন শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসলে উন্নয়নে বদলে যাবে চকরিয়া- পেকুয়ার চেহারা। 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে আওয়ামী লীগের (মহাজোট) প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আ’লীগের দক্ষিণ চট্টলার নেতা আলহাজ্ব জাফর আলম মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ১,২ ও ৩নম্বর ওয়ার্ডের মহিলাদের সাথে উঠান বৈঠকে মিলিত হয়েছেন। এসময় তিনি এসব কথা বলেন।

এছাড়াও তিনি আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় অংশ নেন এবং বিভিন্ন স্থানে একাধিক উঠান বৈঠকে নৌকার পক্ষে ভোট প্রার্থনা করেন। এদিন তিনি উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় জনগণের সাথে কুশল বিনিময় করেছেন। সন্ধ্যায় তিনি চকরিয়া পৌরসভার ৫ নম্বর ও ৬নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনায় অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে সাহারবিল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের মেম্বার সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আবু সাদেকের সঞ্চালনায় উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, চকরিয়া-পেকুয়া আসনের আওয়ামী লীগের (মহাজোট) প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম।

উঠান বৈঠকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আলহাজ্ব জাফর আলম বলেন, ‘দেশে বর্তমান সময়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগ সরকারের বিকল্প নেই। শেখ হাসিনার মেধাবী নেতৃত্বে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে। তেমনি বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকার সুবাদে চকরিয়া-পেকুয়ার প্রতিটি এলাকায় দেখার মত উন্নয়ন হয়েছে। আগামীতে আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহিত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড শেষ হলে দেশের চেহারা পাল্টে যাবে। সেই জন্য একাদশ সংসদ নির্বাচনে চকরিয়া-পেকুয়ার সর্বস্তরের জনগণকে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি মহিলাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা নারী ক্ষমতায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকাকালে নারীদের মাতৃত্বকালীন ভাতা, বিধবা ভাতা, বয়স্কভাতা চালু করেছেন। নারী এখন সমাজ পরির্বতনে কাজ করে যাচ্ছেন। বলতে গেলে জননেত্রী শেখ হাসিনা নারী সমাজের অগ্রদূত।

তিনি বলেন, ইনশাল্লাহ ৩০ ডিসেম্বর চকরিয়া-পেকুয়ার আপামর জনগণের ভালোবাসা নিয়ে ভোটের মাধ্যমে নৌকার বিজয় সু-নিশ্চিতের মাধ্যমে আমরা এই আসনটি নেত্রীকে উপহার দেবো। বিগত পাঁচ বছর একটি উপজেলার চেয়ারম্যান হলেও চকরিয়ার পাশাপাশি পেকুয়ার উপজেলার ২৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার জনগণের কল্যাণে সরকারি সহায়তায় উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সাধ্যমতো কাজ করেছি। পাশাপাশি চকরিয়া-পেকুয়ায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করতে এবং নেতাকর্মীদের বিপদে আপদে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি।

জাফর আলম আরও বলেন, ইনশাল্লাহ নির্বাচনে বিজয়ী হলে সর্বপ্রথম আমার কাজ হবে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলাকে পরিকল্পিত উন্নয়নের মাধ্যমে অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলবো। সেইজন্য প্রিয় চকরিয়া-পেকুয়াবাসীকে অকুন্ঠ চিত্রে উন্নয়নের প্রতীক নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে। আমি ঘোষণা দিতে চাই, দেশদরদী শেখ হাসিনার সালাম নিন, চকরিয়া-পেকুয়ার সার্বিক উন্নয়নে আওয়ামী লীগের উন্নয়নের প্রতীক নৌকায় ভোট দিন।

অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকের সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আমিনুর রশিদ দুলাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এসএম জাহাংগীর আলম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক ও সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মকছুদুল হক ছুট্টো, আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ সেলিম উল্লাহ, অ্যাডভোকেট মো.শাহ আলম, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বাবু এমআর চৌধুরী, সহ-সভাপতি শ্রমিকনেতা আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী, সহ-সভাপতি ছৈয়দ আলম কমিশনার, যুগ্ম সম্পাদক সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম, লক্ষ্যারচর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তাফা কাইছার, কৈয়ারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মক্কী ইকবাল হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান শরীফ উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান চেয়ারম্যান, সাংবাদিক মিজবাউল হক, ক্রীড়া সম্পাদক হাসানুল ইসলাম, সাহারবিলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোজাহের আহমদ, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান হানু, প্যানেল চেয়ারম্যান এনামুল হক, ইউপি মেম্বার সাহাব উদ্দিন, মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাইছার উদ্দিন।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগসহ সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 5 =

আরও পড়ুন