‘সত্যায়ন’ নিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি মাসিক সভায় অধ্যক্ষকে ভৎসনা

fec-image

নারী কেলেংকারী, জালিয়াতিসহ বহু অভিযোগে সম্প্রতি সময়ে আলোচিত নাইক্ষ্যংছড়ি মদিনাতুল উলুম আলীম মাদরাসার অধ্যক্ষকে এবার মাসিক সভায় ভৎসনা করা হয়েছে। চলমান হালনাগাদ ভোটার কার্যক্রমের কাগজপত্র ও পার্সপোর্ট সংক্রান্ত কাগজ সত্যায়ন করায় তাকে রবিবার (২১জুলাই) সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি আইন শৃঙ্খলা সভায় এই তিরষ্কার করা হয়।

উপজেলা পরিষদের মাসিক সভার সভাপতি ইউএনও সাদিয়া আফরিন কচি অধ্যক্ষকে প্রশ্ন করেন, ‘প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা না হয়েও সরকারি বিধান লঙ্ঘন করে কেন সত্যায়িত করছেন?

এসময় জবাবে মাদরাসা অধ্যক্ষ নিজের ভুল স্বীকার করেন এবং ভবিষ্যতে আর তিনি কোন সত্যায়ন করবেন না বলে দুঃখ প্রকাশ করেন।

মাসিক সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক শফিউল্লাহ, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান মংহ্লা মারমা, থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন, মন্ত্রী প্রতিনিধি আলহাজ্ব খাইরুল বাশার, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী, ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর, বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান মো. আলম, সোনাইছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বাহান মার্মাসহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে মাসিক আইন শৃঙ্খলা সমন্বয় সভায় মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ছৈয়দ হোসেন কর্তৃক নারী কেলেংকারী, ডিসির পত্র জালিয়াতিসহ নানা অনিয়ম, দুর্নীতি সমূহের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও মাদ্রাসা কমিটির সদস্য তসলিম ইকবাল চৌধুরী।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: নাইক্ষ্যংছড়ি, ভৎসনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 5 =

আরও পড়ুন