সফল ভূট্টা চাষী নুরুল আলম

বাইশারী প্রতিনিধি:

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারীতে নুরুল আলম ভূট্টা চাষ করে সফলতার মুখ দেখেছেন।

মাত্র ৫০ শতক জমিতে তিনি ভূট্টা চাষ করে জমির মালিক ও খরচ বাদ দিয়ে এক শুষ্ক মৌসুমে অর্ধ লাখ টাকা আয় যায় বলেও তিনি জানান।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, দক্ষিণ বাইশারী গ্রামের নুরুল ধৈয়ার বাপের পাড়া এলাকায় ৩ মাসের জন্য ৫০ শতক জমি লাগিয়ত (এক মৌসুমের জন্য জমির মালিকের কাছ থেকে জমি লিজ নেওয়া) নিয়ে ভূট্টা চাষের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সবজির ও আবাদ করেন। ভূট্টা গাছ বড় হয়ে যাওয়ায় সবজির আবাদ বন্ধ করে ভূট্টা গাছের পরিচর্যা শুরু করেন।

সম্পূর্ণ নিজস্ব পদ্ধতি অবলম্বন করে এ চাষ শুরু করেন তিনি। সরকারিভাবে কোন ধরনের সহযোগিতা তিনি পাননি বলেও জানান।

বাইশারী বাজারের সার ডিলার আবদুল করিম বান্টুর পরামর্শ অনুযায়ী সার, কীটনাশক ও বিষ প্রয়োগ করেছেন।

বর্তমানে সফলতার মুখ দেখেছেন তিনি।

তবে তিনি আক্ষেপ করে বলেন সরকারিভাবে সহযোগিতা পেলে আরও ভাল ফলন হতো।

তিনি জানান, প্রতিটি ভূট্টা গাছে চারটি ফল ধরেছে। প্রতিটি দশ টাকা করে ক্ষেত থেকে লোকজন ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছে।

তাছাড়া সে নিজেই বড় পাত্রে সিদ্ধ করে বিভিন্ন বাজার পাড়া মহল্লায় বিক্রি করে নগদ টাকা আয় করছে। আবাল-বৃদ্ধ সবাই সিদ্ধ করা ভূট্টা খাওয়ার জন্য বাগানে ভীড় জমায়। ফলে পাইকারের দ্বারস্থ হতে হয় না। আগামীতে আরও বেশী জমিতে চাষ করে চমক দেখাতে চায় নুরুল আলম।

ঘটনাপ্রবাহ: সফল ভূট্টা চাষী নুরুল আলম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × five =

আরও পড়ুন