সেনাবাহিনী ধর্মীয় উপাসনালয় ভাঙে না, গড়ে দেয়: লে, ক. ওবায়দুল

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাঙামাটি:
জুরাছড়ি জোন কমান্ডার লে.কর্ণেল কে.এম ওবায়দুল হক পিএসসি পাহাড়ে সাম্প্রতিক সময়ে দুষ্কৃতকারী কর্তৃক বৌদ্ধমন্দির ভাঙার প্রসঙ্গে বলেছেন, সেনাবাহিনী মন্দির ভাঙে না, নিজেদের ঘাম, অর্থ দিয়ে সহযোগিতা দিয়ে গড়ে দেয়। সেনাবাহিনী পাহাড়ে শান্তির জন্য, এ অঞ্চলের মানুষের জন্য দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছে এবং সকল সম্প্রদায়ের মানুষের বিপদে এগিয়ে যাচ্ছে।

শনিবার (২৭অক্টোবর ) দুপুরে জুরাছড়ি উপজেলার সুবলং বনবিহারে ২৬ তম দানোত্তম কঠিন চীবর দান উপলক্ষে অতিথি থেকে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, গুইমারা উপজেলার হাফছড়ি ইউনিয়নের কুকিছড়া জেত বন বৌদ্ধ বিহারে বৌদ্ধ মূর্তি ভাংচুরের ঘটনায় সেনাবাহিনীকে দায়ী করা হচ্ছে। এই রকম ন্যাকারজনক কাজ সেনাবাহিনী কখনো করে না । পাহাড়ের একটি স্বার্থানেষী মহল অরাজকতা সৃষ্টি করতে এটা নিয়ে রাজনীতি করছে বলে জানান।

অনুষ্ঠানে এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান উদয়জয় চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান প্রবর্তক চাকমা। বিশ্বের হিতসুখ মঙ্গল কামনায় বিশেষ পাঠ করেন ধলকুমার চাকমা।

ধর্মীয় আলোচনা শেষে জোন কমান্ডার বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতির নিকট আর্থিক অনুদান তুলে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + eighteen =

আরও পড়ুন