অদক্ষ চালকে প্রাণ গেল হেলপারের

fec-image

পানছড়ির ফাতেমানগর এলাকায় অটোরিক্সা উল্টে আসিব (১৫) নামে এক কিশোরের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। সে দমদম গ্রামের মো. বাবুলের সন্তান।

জানা যায়, পানছড়ি বাজারস্থ বার আউলিয়া বেকারীর বানানো সামগ্রী অটোরিক্সাযোগে দোকানে দোকানে পৌঁছে দেয়। অটো চালকের নাম মোমিনুল হক। তার বয়স মাত্র চৌদ্দ বছর। কিশোর মোমিনুলের সহযোগী হিসেবে কাজ করতো আসিব।

রবিবার (৪ এপ্রিল) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার ফামেতানগর গুচ্ছগ্রাম এলাকায় বেকারীর মাল বহনকারী অটোরিক্সাটি উল্টে গেলে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় আসিব। সামান্য আহত হয় চালক মোমিনুল। স্থানীয়রা উদ্ধার করে আসিবকে পানছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সুমেন চাকমা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

অটোরিক্সা চালক কিশোর মোমিনুল তার বয়স চৌদ্দ নিশ্চিত করেন। বেকারীর মালিক মো. জাহাঙ্গীর আলম মুঠোফোনে জানান, কম বয়সী চালক নেয়া তার ভুল হয়েছে। এ ধরণের ভুল আর কখনো হবেনা।

বেকারীর ম্যানেজার শাকিল জানান, আমি বিগত ছয়-সাত মাস ধরে কাজ করি। এ ব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা।

এদিকে মোল্লাপাড়ায় লাতু মিয়া (৮৩) নামে এক বৃদ্ধ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আত্মহনন করেছে। সে মৃত আবজাল মিয়ার সন্তান। তার কোন স্ত্রী-সন্তান না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ অবস্থায় দিনাতিপাত করছিলো বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়। ৪ এপ্রিল ভোরের যে কোন সময়ে সে আত্মহনন করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। পানছড়ি থানার ওসি মো. দুলাল হোসেন ঘটনা দুটির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অটোরিক্সা দুর্ঘটনার ব্যপারটি মামলা প্রক্রিয়াধীন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven + eighteen =

আরও পড়ুন