অপহরণের তের দিন পর আলো প্রদীপ ত্রিপুরার লাশ উদ্ধার

fec-image

অপহরণের তের দিন পর খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার দুর্গম হিলছড়ি এলাকা থেকে আলো প্রদীপ ত্রিপুরা (৩৭) নামে এ যুবকের হাত বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ। আলো প্রদীপ ত্রিপুরা হিলছড়ি এলাকার সতীশ কুমার ত্রিপুরার ছেলে।

হিলছড়ি কালা পাহাড় নামক স্থানে মাটির নিচে গর্তে পোতা একটি লাশ রয়েছে এমন খবরে সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মাটিরাঙ্গা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শাহনুর আলম ও তৈকাতং ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়রেন্ট অফিসার মো. তৈয়েবুর রহমান এর নেতৃত্বে নিরাপত্তা বাহিনী ও মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ মাটিরাঙ্গা জোনের আওতাধীন তৈকাতং ক্যাম্প থেকে ৮ কি.মি. পূর্বে হিলছড়ি কালা পাহাড় থেকে আলো প্রদীপ ত্রিপুরার লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গেল বছরের ৩০ ডিসেম্বর স্থানীয় তুলারাম ত্রিপুরা‘র ভাগনি জামাইকে বান মারার সন্দেহে আলো প্রদীপ ত্রিপুরাকে অপহরণ করে তুলারাম ত্রিপুরাসহ কয়েকজন। অপহরণের পর থেকেই তাকে উদ্ধারে সেনাবাহিনী ও পুলিশ একাধিক অভিযান পরিচালনা করে। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় অপহরনের সাথে সম্পৃক্ত থাকার সন্দেহে গত ১ জানুয়ারি নারায়ন সেন ত্রিপুরা, মুজি কুমার ত্রিপুরা ও চাকতে কুমার ত্রিপুরা নামে তিনজন কে আটক করে।

আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালত তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এসময় আসামীদের একদিনের রিমান্ডে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলেও জানান মাটিরাঙ্গা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শাহনুর আলম।

এ ঘটনায় অপহৃতের ছোট ভাই খোকন ত্রিপুরা (২১) বাদী হয়ে সন্দেহভাজন ১১ জনের নামে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করেন। মাটিরাঙ্গা থানার মামলা নং-০১ তারিখ-০১-০১-২০২০খ্রি.।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামসুদ্দিন ভুইয়া বলেন, স্থানীয়দের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দুর্গম পাহাড় থেকে নিহতের ছোট ভাই খোকন ত্রিপুরা ও স্থানীয় ইউপি মেম্বারের শনাক্ত মতে আলো প্রদীপ ত্রিপুরার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অপহরণের, মাটিরাঙ্গা, লাশ উদ্ধার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − 18 =

আরও পড়ুন