মাটিরাঙ্গা থেকে অপহৃত চার বাঙ্গালী শ্রমিক উদ্ধার

17.07.2014_Matiranga Labour Recover Pic-03

সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার :

অপহরণের ১১ দিন পরে অপহরণকারীদের কবজা থেকে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার ব্যাঙমারা এলাকা থেকে সেতু উন্নয়ন প্রকল্পের অপহৃত চার বাঙ্গালী শ্রমিককে উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী। সিন্ধুকছড়ি জোনের আওতাধীন কংসীমুড়া প্রাক্তন সেনা ক্যাম্প এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাত পৌন ৯টার দিকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয় বলে সেনা সুত্র নিশ্চিত করেছে। উদ্ধারকৃতরা হলেন- বুলডোজার চালক রাজু মিয়া, বুলডোজারের হেলপার হাসান মিয়া, মো. ফারুক মিয়া ও লিয়াকত আলী।

খাগড়াছড়ির সিন্দুকছড়ি জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল রাব্বী আহসানের নেতৃত্বে সেনাবহিনীর সদস্যরা অপহৃতদের উদ্ধার করে। অপহৃতদের উদ্ধারে অভিযান চলাকালে সেনাবাহিনীর সাথে সন্ত্রাসীদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। এসময় সেনাবাহিনী একটি দেশী এলজি ও একটি রিভলবার এবং বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ উদ্ধার করে। এখনো সেনাবাহিনী পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে। 

অপহরণকারীদের কবজা থেকে উদ্ধার হওয়া চার বাঙ্গালী শ্রমিক বর্তমানে সিন্ধুকছড়ি জোন হেফাজতে রয়েছে বলে জানিয়েছেন মাটিরাঙ্গা জোনের জোনাল স্টাফ অফিসার ক্যাপ্টেন মো: কাওছার।

সিন্দুকছড়ি জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল রাব্বি আহসান জানান, সবকিছু নিশ্চিত হয়ে সেনাবাহিনী কংসীমুড়া এলাকাটি ঘিরে ফেলে। এক পর্যায়ে সেনা সদস্যরা বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকাগুলি ছুড়লে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। উদ্ধারকৃত শ্রমিকরা অক্ষত ও সুস্থ রয়েছে এবং সেনাবাহিনী এখনও ঐ এলাকা তল্লাশি চালাচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, ৬ জুলাই রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম আঞ্চলিক সড়কের মাটিরাঙ্গা উপজেলার ব্যাঙমারা এলাকায় নির্মানাধীন ব্রীজের সাইট থেকে চাঁদার দাবীতে ৪ শ্রমিককে অপহরণ করে জেএসএস (এমএন লারমা) গ্রুপের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। অপহরনের পর থেকেই সেনাবাহিনীর মাটিরাঙ্গা, মহালছড়ি ও সিন্দুকছড়ি জোন এবং পুলিশ নানা ভাবে তাদেরকে উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

প্রসঙ্গত, ইস্টার্নব্রীজ ইম্প্রুভমেন্ট প্রজেক্ট এর আওতায় সরকারি অর্থায়নে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) ব্যাঙমারা ব্রিজটি নির্মাণ কাজ করছে। গেল বছর ৬ সেপ্টেম্বর যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্মানাধীন এ সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × three =

আরও পড়ুন