অবৈধ অস্ত্রের কারণে পাহাড়ি কি বাঙ্গালী কেউ ভালো নেই: দীপংকর তালুকদার

fec-image

পাহাড়ের অবৈধ অস্ত্রধারীদের কারণে সাধারণ জনগনের স্বাভাবিক জীবন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি। তিনি বলেন, পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্রের কারণে সাধারণ মানুষ কি পাহাড়ি কি বাঙ্গালী কেউ ভালো নেই। উন্নয়ন কাজে বাধাসহ পাহাড়ের শান্তিপ্রিয় জনগনের উপর বিভিন্ন সময়ে অত্যাচার ও নিপীড়নের কারণে নাভিশ্বাস উঠেছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে গুলশাখালীতে দীপংকর তালুকদার গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ ও শান্তিনগর বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে সংক্ষিপ্ত জনসভায় তিনি এইসব কথা বলেন।

এ সময় রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরী, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজী কামাল উদ্দিন, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য মো. আব্দুর রহিম, জেলা পরিষদ সদস্য নিউচিং মারমা, জেলা পরিষদ সদস্য এলিপন চাকমাসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

দীপংকর তালুকদার এমপি আরও বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের বর্তমান সরকারের আমালে যে উন্নয়ন হয়েছে তা অতীতে কোন সরকারের আমলে হয়নি। তিনি বলেন লংগদু উপজেলায় যেখানে রাস্তা ছিলো না সেখানে রাস্তা করে দেয়া হয়েছে। যেখানে স্কুল ছিল না সেখানে স্কুল করে দেয়া হয়েছে। যেখানে চিকিৎসা ব্যবস্থা ছিলো না সেখানে কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে। পাহাড়ের প্রতিটি গ্রামের গ্রামের যেখানে বিদ্যুতের সুবিধা ছিলো না সেখানে সোলার প্যানেলের মাধ্যমে আলোকরণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, যা কিছু করা হয়েছে তা আমার হাত ধরেই করা হয়েছে। আমি করা মানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ করা। আর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ করা মানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করা। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি সম্পৃক্ততায় পাহাড়ের সকল উন্নয়ন কর্মকাণ্ড করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন দীপংকর তালুকদার

তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের কথা চিন্তা আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর দরকার তাদের অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা। তারা যদি উন্নয়ন কাজে বাধা না দেয় তাহলে পাহাড়ের আরো বেশি উন্নয়ন কার্যক্রম হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

এর আগে তিনি লংগদু উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে তার নিজস্ব তহবিল থেকে ১১ জন হত দরিদ্রের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেন। এবং লংগদু উপজেলার গুলশাখালী, ভাসাইন্যাদম সহ বিভিন্ন এলাকায় হাতির আক্রমনে ক্ষতিগ্রস্ত ৬০ পরিবারের মাঝে ২ হাজার টাকা করে নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 12 =

আরও পড়ুন