অভিনেত্রীকে অপহরণের পরিকল্পনা, গ্রেপ্তার ৮

fec-image

বড় ধরনের বিপদের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন ভারতের দক্ষিণী অভিনেত্রী শামনা কাসিম। তাঁকে হুমকি, ব্ল্যাকমেইল ও অপহরণের পরিকল্পনার অভিযোগে কেরালা পুলিশ আটজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

তবে ওই চক্রের আরো চার সদস্য এখনো অধরা। চক্রটির পরিকল্পনার কথা শামনা আগেই পুলিশকে জানান। আর দুর্বৃত্তদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের আগেই পুলিশ তাদের গ্রেপ্তারে সক্ষম হয়।

ভারতের সংবাদমাধ্যম ফ্রি প্রেস জার্নালের প্রতিবেদনে জানা যায়, বিয়ের অজুহাতে ওই চক্রের সদস্যরা কীভাবে তাঁর পরিবারের ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল, সেটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন শামনা কাসিম।

শামনা লিখেছেন, ‘এই কঠিন পরীক্ষার সময়ে দারুণ সমর্থনের জন্য আমার প্রিয় বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের জানাই ধন্যবাদ। আমি কেবল কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে মামলা সম্পর্কিত অবাস্তব প্রতিবেদনের বিষয়ে স্পষ্ট করে বলতে চাই।

এই ব্ল্যাকমেইল চক্রের সঙ্গে কারা জড়িত, তা আমি না জানলেও দোষীদের সঙ্গে আমাকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদ না করতে সাংবাদিক বন্ধুদের অনুরোধ করছি।’

‘আমার পরিবার অভিযোগ দায়েরের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কেননা বিয়ের প্রস্তাবের সঙ্গে ভুয়া নাম, জাল ঠিকানা, ভুয়া পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করা হয়েছে আমাদের সঙ্গে। এটি আমাদের একেবারেই বিভ্রান্ত করে দিয়েছিল। এর ফলে শেষমেশ ব্ল্যাকমেইলের ঘটনা ঘটে। এতে আমরা আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য পুলিশের কাছে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। আমরা আসলে জানতাম না বা এখনো জানি না তাদের উদ্দেশ্য কী ছিল,’ লেখেন শামনা।

শামনা আরো লেখেন, ‘আমার অভিযোগের পর কেরালা পুলিশ সম্প্রতি একটি দুর্দান্ত কাজ করেছে। তারা অপরাধীদের গ্রেপ্তার করেছে। তাই আমি গণমাধ্যমের বন্ধুদের অনুরোধ করছি, তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমার ও আমার পরিবারের ব্যক্তিগত গোপনীয়তার অধিকারের লঙ্ঘন করবেন না।

ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থার প্রতি আমার সম্পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে। মামলাটি সমাধান হয়ে গেলে আমি অবশ্যই গণমাধ্যমের সঙ্গে দেখা করব। আবারও আমি প্রিয় বন্ধুবান্ধব এবং শুভানুধ্যায়ীকে আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন সময়ে প্রচুর সমর্থন এবং স্বস্তি দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আমি আশা করছি, মামলার মাধ্যমে এই জালিয়াত চক্রের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমার সহযোদ্ধারা সচেতন থাকবেন। ভালোবাসা, শামনা কাসিম (পূর্ণা)’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুলিশের হেফাজতে সাত সন্দেহভাজন রয়েছে এবং একজনের করোনার চিকিৎসা চলছে। বাকি চারজনকে এখনো আটক করা যায়নি। এ বছরের শুরুর দিকে আট মডেলের কাছ থেকে অর্থ চাঁদাবাজি করার জন্য এই চক্রের সদস্যরা একই পদ্ধতি ব্যবহার করে।

শামনা কাসিম তাঁর ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন নৃত্যশিল্পী ও মডেল হিসেবে। টেলিভিশন জগতে সাফল্য অর্জনের পর তিনি চলচ্চিত্রে প্রবেশ করেন। ২০০৪ সালে শুরু হওয়া ক্যারিয়ারে তিনি এ পর্যন্ত প্রায় ৪০টি দক্ষিণী ছবিতে অভিনয় করেছেন। আগামীতে তাঁকে ‘থালাইভি’ ছবিতে বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌতের পাশাপাশি অভিনয় করতে দেখা যাবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen − 6 =

আরও পড়ুন