আইন অনুযায়ী ভূমির বিষয়টি পরিষদে হস্তান্তর করা হলে সমস্যা থাকবে না : বৃষকেতু চাকমা

fec-image

আইন অনুযায়ী ভূমি সংক্রান্ত যেকোন বিষয়ে পরিষদের পূর্বানুমোদনের বাধ্যবাধকতা থাকলেও ভূমি অধিগ্রহণে এ পর্যন্ত কোন কর্তৃপক্ষ পূর্বানুমোদন নেয়নি। এজন্য প্রশাসনিক সমন্বয়হীনতাকে দায়ি করেন। ফলে আইন অনুযায়ী ভূমির বিষয়টি পরিষদে হস্তান্তর করা হলে সমস্যা থাকবে না।

রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে চেয়ারম্যানের অফিস কক্ষে বিশ্ব ব্যাংক বাংলাদেশ এর একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে চেয়ারম্যানের সাক্ষাৎকালে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের অন্যতম সমস্যা ভূমি বিষয়ক সমস্যা। এ সমস্যার কারণে সরকার ভূমি কমিশন গঠন করেছে এবং এর মাধ্যমে ভূমি সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে এবং পার্বত্য জেলা পরিষদ আইন অনুযায়ী ভূমি ব্যবস্থাপনা পরিষদে হস্তান্তর করার কথা থাকলেও এখনও পরিষদের কাছে তা হস্তান্তর করা হয়নি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এসময় সাক্ষাৎকালে প্রতিনিধিদল জানান, বাংলাদেশে অবস্থিত বিশ্বব্যাংক ভূমি অধিগ্রহণ এবং পুনর্বাসন বিষয়ে একটি স্টাডি করার উদ্যোগ নিয়েছে। এই স্টাডির মাধ্যমে বাংলাদেশে ভূমি অধিগ্রহণ এবং ভূমি অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে প্রতিবন্ধকতা এবং চ্যালেঞ্জগুলো অনুসন্ধানপূর্বক সম্ভাব্য প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা বিষয়ে পরামর্শ প্রদান করা হবে।

প্রতিনিধি দলে ছিলেন, অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত সচিব ড. মোহাম্মদ আলী খান, অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ ইকবাল, বিশ্ব ব্যাংকের কনসালট্যান্ট মোঃ আকতার হোসাইন, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের ভূগোল এবং পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপিকা হাফিজা খাতুন এবং বিশ্ব  ব্যাংকের সোশাল ডেভেলাপমেন্ট স্পেশালিস্ট কীর্তি নিশান চাকমা।

পরিষদের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ এবং জনসংযোগ কর্মকর্তা অরুনেন্দু ত্রিপুরা

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: পার্বত্য চট্রগ্রাম, বিশ্ব ব্যাংক, ভূমি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − eight =

আরও পড়ুন