আজ থেকে শুরু হচ্ছে মহেশখালী হাসপাতালে সিনোফার্মের করোনা টিকা প্রয়োগ

fec-image

কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ের প্রথম ডোজের জন্য চীনের সিনোফার্মের তৈরি দেড় হাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে পৌঁছেছে। সোমবার (১২ জুলাই) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকাগুলো গ্রহণ করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহাফুজুল হক। মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে টিকা দেওয়ার কাযক্রম শুরু হয়েছে।

মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাহাফুজুল হক বলেন, মহেশখালী উপজেলার জন্য আমরা দেড় হাজর ডোজ টিকা পেয়েছি। এসব টিকা প্রথম ডোজ হিসাবে মঙ্গলবার ১৩ জুলাই থেকে এই টিকা প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা প্রথম পর্যায়ে প্রবাসীদের অগ্রাধিকার দিবো। দুটি বুথে এই টিকা কার্যক্রম চলবে। যারা টিকার জন্য ম্যাসেজ পাবেন তারাই হাসপাতালে এসে তা দেখিয়ে টিকা নিতে পারবেন। এছাড়াও পূর্বে যারা রেজিষ্ট্রেশন করেছেন এবং ম্যাসেজ পেয়েছেন কিন্তু ১ম ডোজ টিকা নেন নাই তারাও এই টিকা নিতে পারবেন। এছাড়া যারা সিরামের ১ম ডোজ টিকা নিয়েছেন কিন্তু ২য় ডোজ নিতে পারেন নাই তারা এই টিকা নিতে পারবেনা। তাদেরকে সিরামের ভ্যাকসিনের জন্য অপেক্ষা করতে হবেও বলে জানান এ কমকর্তা।

এদিকে মহেশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন গড়ে ৩০-২৫জনের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে শতকরা ৫০ শতাংশ লোকের করোনা পজিটিভ আসছে এন্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে। আর পজিটিভ হওয়া রোগীদের মধ্যে যারা হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসছে তাদের শারীরিক কন্ডিশন খারাপ হলে তাদের পুনরায় নমুনা সংগ্রহ করে হাসপাতালে জিন এক্সপার্ট মেশিনের সাহায্যে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

আরও জানা যায়, কোভিড -১৯ টিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ের চীনের সিনোফার্মের এ টিকা প্রবাসীদের মধ্যে সৌদি আরব, কাতার ও কুয়েত প্রবাসীরা গ্রহন করতে পারবে না। প্রতিদিন সকাল ৯টা হতে দুপুর ৩ টা পর্যন্ত হাসপাতালে টিকাদান কর্মসূচি চলবে।

টিকা পাওয়ার নিয়মাবলিঃ
যারা ইতিপূর্বে রেজিস্ট্রেশন করেছেন কিন্তু একটা ডোজও আপনি গ্রহন করেননি তাদেরকে এ টিকা দেওয়া হবে।

শুধুমাত্র যাদের মোবাইলে টিকা গ্রহণ করার মেসেজ যাবে তাদেরকেই টিকা নিতে কেন্দ্রে আসতে পারবে।

এক কেন্দ্রে রেজিস্ট্রেশন করে অন্য কেন্দ্রে বা অন্য কেন্দ্রে রেজিস্ট্রেশন করে টিকা কার্ড নিয়ে আসলে বা মেসেজ দেখালেও তাদেরকে টিকা প্রদান করা হবে না।

যে কেন্দ্রের রেজিস্ট্রেশন সে কেন্দ্রেই কেবল টিকা গ্রহণ করতে পারবে। সবাই মাস্ক পরে টিকা কেন্দ্রে আসা স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লাইনে দাঁড়িয়ে শান্তিপূর্নভাবে টিকা গ্রহন করতে হবে।

টিকা কেন্দ্রে আসার সময় যে মোবাইলে মেসেজ গিয়েছে সে মোবাইলটি এবং টিকা কার্ড সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। যে সমস্ত জনসাধারণ কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন ১ম ডোজ নিয়েছেন কিন্তু ২য় ডোজ নিতে পারে নাই, তারা কোনভাবেই সিনোফার্ম টিকা নিতে পারবে না। যদি সম্ভব হয় পুরুষরা হাফ হাতা শার্ট পরে আসবেন এবং মহিলারা সহজে টিকা প্রদান করা যাবে এমন পোশাক পরিধান করে আসতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 + twelve =

আরও পড়ুন