আদা-কফির এত গুণ!

fec-image

আদার অসংখ্য স্বাস্থ্য উপকারিতা ব্যাপকভাবে পরিচিত। এ কারণে শীত পড়লে অনেকেই আদা-চা খেতে ভালোবাসেন। তবে শুধু আদা-চা নয়, আদা-কফিও পান করে দেখতে পারেন। এই কফির বেশ স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, স্ট্রেস দূর করতে দারুণ কাজ করে আদা-কফি। সর্দি, কাশি, গলাব্যথা, মাথাব্যাথার সমস্যা থাকলেও পান করতে পারেন আদা- কফি। নিশ্চিত স্বস্তি মিলবে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শরীর গরম রাখতে এবং ঠান্ডা ও ফ্লু প্রতিরোধে সহায়তা করতে পারে আদা-কফি। অনেক সময় খাওয়ার কারণে পেটে অস্বস্তি বা খারাপ লাগতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে এক কাপ গরম আদা-কফি খেয়ে নিন। সঙ্গে সঙ্গে উপকার পাবেন। খাবার দ্রুত হজমেও সাহায্য হবে। এই কফি মানসিক চাপ ও অস্থিরতাও কমিয়ে দিতে পারে। এছাড়াও আরও নানা উপকারিতা রয়েছে আদা-কফির।

বাসায় খুব সহজেই নানাভাবে তৈরি করতে পারেন আদা-কফি।

* একটি পাত্রে পানি নিয়ে তাতে ছোট ছোট করে কাটা কয়েক টুকরো আদা দিন। ভালো করে ফুটতে দিন। এরপর এর মধ্য়ে প্রয়োজনমতো কফি মিশিয়ে দিন। কিছুক্ষণ ফোটাতে থাকুন। কাপের মধ্যে এক চামচ মধু দিন। আদা দেওয়া কফি, মধু দেওয়া কাপে ঢেলে দিন। প্রয়োজনে একটু লেবুর রসও দিতে পারেন।

* এক টুকরো আদাকে ভালো করে থেঁতলে নিন। এরপর এই আদা পানিতে দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। এরপর প্রয়োজনমতো কফি ঢেলে দিন। গরম কফিতে এক চামচ মধু দিয়ে পান করুন। আদা কফিতে চিনির বদলে মধু ব্যবহার করলে খেতেও ভালো লাগবে, উপকারও পাবেন।

* একটি পাত্রে ৪ কাপ পরিমাণ পানি ফুটিয়ে নিন। পানি ফুটে গেলে এতে ৩ টেবিল চামচ গুড় দিন এবং গুড় গলে না যাওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। এরপর এর সঙ্গে ১ টেবিল চামচ আদা গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ জিরা, ১ টেবিল চামচ কফি পাউডার, ১ টেবিল চামচ গোল মরিচের গুঁড়া দিয়ে প্রায় ৫ মিনিট ফুটাতে থাকুন। এরপর কয়েকটি তুলসী পাতা যোগ করে আরও ২ মিনিট ফুটতে দিন। এবার এতে ৪টি এলাচ ও সামান্য লবণ মিশিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন। ধীরে-সুস্থে পরিবারের সঙ্গে পান করুন।

সূত্র: রাইজিংবিডি.কম

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =

আরও পড়ুন