আলীকদমে ইট ভাটায় ২ লাখ টাকা জরিমানা

fec-image

আলীকদম উপজেলায় বান্দরবান জেলা প্রশাসনের একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ইট ভাটায় অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে অভিযানের শুরুতে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মো. মামুনুর রশিদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে যান পূর্ব পালং পাড়ার ফাতেমা ব্রিক ম্যানুফেকচারিংয়ে (এফবিএম)। এফবিএম কর্তৃপক্ষ ব্রিক ফিল্ড চালু রাখতে হাইকোর্টের একটি রীটের ফটোকপি ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে উপস্থাপন করেন।

পরে সেখান থেকে ফিরে গিয়ে আমতলী পাড়ায় ইউনিক ব্রিক ম্যানুফেকচারিং (ইউবিএম) নামে ব্রিক ফিল্ডে অভিযান চালান ভ্রাম্যমান আদালত।

এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুররশিদ ইউবিএম-কে ২ লাখ টাকা জরিমানা ও ইট ভাটার ২টি চিমনী ধ্বংস করার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ইট ভাটায় পানি ঢালেন এবং স্কেভেটর দিয়ে দু’টিচিমনী ধ্বংস করেন।

এফবিএম এর মালিক শওকত তালুকদার মুঠোফোনে জানান, তাঁর মালিকানাধীন এফবিএম ইটভাটা চালু রাখার বিষয়ে হাইকোর্টের রীটের আলোকে নির্দেশনা আছে। একই বক্তব্য দেন উপজেলার তারা বুনিয়ায় স্থাপিত এবিএম ব্রিক ফিল্ডের ম্যানেজার আব্দুল কাদের।

এদিকে, অভিযান চলকালে এফবিএম ব্রিক ফিল্ডে উপস্থিত হন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল কালাম। তিনি বলেন, সম্পূর্ণ অবৈধভাবে ইট ভাটা চালাচ্ছে ইউবিএম। এই ইট ভাটার মালিক আলীকদম উপজেলায় কোন সামাজিক কর্মকাণ্ডে বিন্দু পরিমাণ অবদান রাখেনা। তারপরও তার সম্পর্কীয় সরকার দলের একজন নেতার পরিচয়ে এফবিএম মালিক শওকত তালুকদার বছরের পর বছর ধরে ইউবিএম ইট ভাটা চালু রেখেছেন।

উল্লখ্য যে, হাইকোর্টের রিটপিটিশন মামলা নম্বর ১২০৪/২০২২ এর আদেশের আলোকে বান্দরবান জেলা প্রশাসন এ অভিযান পরিচালনা করছে। আলীকদমের ৩টি ইট ভাটার একটি সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। অপর দু’টির বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেন জেলা প্রশাসন তা পরবর্তীতে জানাবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × one =

আরও পড়ুন