‘ইউক্রেনে এক দিনেই ৪০০ গোলাবর্ষণ রাশিয়ার’

fec-image

রবিবার ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে প্রায় ৪০০ গোলা হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। রবিবার দিবাগত রাতের ভাষণে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘ডনেস্ক অঞ্চলে পূর্বের মতো ভয়াবহ লড়াই চলছে। যদিও বৈরি আবহাওয়ার ফলে তুলনামূলক কম হামলা হয়েছে আজ। এখনও গোলাবর্ষণের পরিমাণ অনেক বেশি হচ্ছে। লুহানস্ক অঞ্চলে লড়াইয়ের সময় আমরা ধীরে এগোচ্ছি। পূর্বাঞ্চলে এখন পর্যন্ত ৪০০ গোলা হামলার ঘটনা ঘটেছে।’

ইউক্রেনীয় সেনাদের জোরালো প্রতিরোধের মুখে খেরসনের একাংশ থেকে সেনা তুলে নিয়েছে মস্কো। এখন ইউক্রেনের ডনেস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলে অবস্থান শক্ত করতে আরও সেনা বাড়িয়েছে রাশিয়া। রুশ প্রেসিডেন্ট ইউক্রেনের যে চারটি অঞ্চলকে মস্কোর অংশ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন তার মধ্যে লুহানস্ক ও ডনেস্ক রয়েছে।

এ বিষয়ে প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘দক্ষিণাঞ্চলে দখলদারদের সম্ভাবনাকে অব্যাহত ও নিখুঁতভাবে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে।’

এর আগে তিনি দাবি করেন, সামরিক অভিযানের শুরু থেকে ইউক্রেনে ৪ হাজার ৭০০ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে রাশিয়া। বলেন, আজ পূর্ণ মাত্রার যুদ্ধের ২৭০তম দিন। রাশিয়া ৪ হাজার সাতশোর বেশি ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে।

এদিকে শনিবার সন্ধ্যা থেকে দক্ষিণ ইউক্রেনের রুশ অধিকৃত পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এলাকাটিতে এক ডজনেরও বেশি শক্তিশালী বিস্ফোরণ রেকর্ড করা হয়েছে। রবিবার সকালেও অল্প সময়ের মধ্যে ডজনেরও বেশি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। বিস্ফোরণের ঘটনায় পরস্পরকে দুষছে রাশিয়া ও ইউক্রেন। পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এলাকায় সংঘাত বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা (আইএইএ)-র মহাপরিচালক রাফায়েল মারিয়ানো গ্রোসি। তিনি বলেন, এর নেপথ্যে যারাই থাকুক, অবিলম্বে এটা বন্ধ করতে হবে। আমি আগেও অনেক বার বলেছি, আপনারা আগুন নিয়ে খেলছেন।’

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, বিবিসি

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইউক্রেন, রাশিয়া
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × four =

আরও পড়ুন