ইট ভাটার ট্রাক চলাচলের কারণে বেহাল গ্রামীণ সড়ক

fec-image

গ্রামীণ সড়ক দিয়ে ইট বা ইট তৈরীর কাঁচামাল বোঝাই গাড়ি চলাচলে নিষেধ থাকা স্বত্বেও বান্দরবানের সোনাইছড়িতে তা মানা হচ্ছে না। ইট ভাটার ট্রাক চলাচলের কারণে গ্রামীণ সড়ক ভেঙে গেছে। বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় গর্ত ও খানা-খন্দ তৈরি হওয়ায় চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে পুরো একটি সড়ক। এতে ব্যাপক দুর্ভোগে পড়েছে স্থানীয় অন্তত একশত পরিবার।

সরেজমিনে এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের বৈদ্যছড়া এলাকার প্রাকৃতিক বনাঞ্চল ও স্কুলের পাশে প্রায় ৫একর জায়গা জুড়ে গড়ে উঠেছে অবৈধ ইটভাটা। ‘এফডিআর’ নামক ইটভাটাটির কোন প্রকার অনুমোদন না থাকা সত্বেও পরিবেশ ও প্রকৃতি ধ্বংস করে বিনা বাধায় কার্যক্রম চালাচ্ছে মালিকপক্ষ। এলাকাবাসী জানান, ওই ইটভাটা থেকে মাত্র ২৭০ফুট দূরত্বে রয়েছে সরকারি একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আল ইসলামী দাখিল মাদরাসা নামে একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান।

স্থানীয় বাসিন্দা সিরাজুল হক, বশিরুল আলমসহ স্থানীয়রা জানান, সোনাইছড়ি বৈদ্যছড়া প্রধান সড়ক থেকে মাত্র একশ ফুট দূরত্বে এই ইটভাটায় গাড়ি চলাচলের কারণে একটি গ্রামীণ সড়ক ভেঙ্গে গেছে। বৈদ্যছড়া থেকে নিকুছড়ি যাওয়ার এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন সাতঘরিয়াপাড়া, পাগলীপাড়াসহ ৯নম্বর ওয়ার্ডের আশপাশের প্রায় একশ পরিবার নিয়মিত যাতায়াত করে। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরে ইট বোঝাই ট্রাক ও ইট তৈরীর কাঁচামাল বোঝাই গাড়ি চলাচলের কারণে সড়কের দুইপাশে ভেঙ্গে গেছে। গত ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে এলজিএসপি থেকে ওই সড়কটি সংষ্কার করা হয়েছিল। অভিযোগের বিষয়য়ে এফডিআর ইটভাটার মালিক ফজল করিম এর ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এই প্রসঙ্গে জানতে যোগাযোগ করা হলে সোনাইছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যানিং মারমা বলেন, সড়ক ভেঙ্গে জনদূর্ভোগের বিষয়টি স্থানীয়রা আমাকে জানিয়েছেন। একক ব্যক্তি বা ব্যবসার স্বার্থে সরকারি অর্থায়নে নির্মীত গ্রামীণ সড়ক ধ্বংস করা মোটেও উচিত হয়নি। বিষয়টি তিনি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে অবহিত করবেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two + seven =

আরও পড়ুন