ইমাম মুয়াজ্জিনদের রমজানের উপহার সামগ্রী দিলো কক্সবাজার লায়ন্স ক্লাব

fec-image

বাংলাদেশের প্রথম সেঞ্চুরিয়ান চার্টার্ড লায়ন্স ক্লাব কক্সবাজার এর উদ্যোগে জেলার একশ’ মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের রমজানের ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সকালে কক্সবাজার শহরের কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে এই ইফতার সামগ্রী বিতরণের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত আয়োজনে একশ’ মসজিদের প্রায় দুই শতাধিক ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের এই সহায়তা দেয় হয়। ইফতার সামগ্রীর মধ্যে ছিল তেল, পেঁয়াজ, চিনি, মুড়ি, খেজুর, খেসারির ডাল, ছোলা ও সেমাই। সব মিলে প্রতিজনকে ১৩ কেজি করে এই উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।

কক্সবাজার জেলার একশ’ মসজিদের সকল ইমাম মুয়াজ্জিনকে নিয়ে এ ধরনের সামাজিক প্রোগ্রাম এাঁই প্রথম হয়েছে বলে জানান টেকপাড়া জামে মসজিদের ইমাম মো. মাওলানা মোজাম্মেল হক।

তিনি বলেন, সেঞ্চুরিয়ান চার্টার্ড লায়ন্স ক্লাব কক্সবাজার ইমাম সমাজকে যে সম্মান দেখিয়েছে তা বিরল। আমরা উপস্থিত সকলেই সেঞ্চুরিয়ান চার্টার্ড লায়ন্স ক্লাব কক্সবাজার এর সফলতা কামনা করি। যেন ভবিষ্যতেও ইমাম সমাজসহ জেলার দরিদ্র ও অসহায় মানুষের কল্যানে কাজ করতে পারেন।

কক্সবাজার লায়ন্স ক্লাবের উদ্যোগে রমজান সেবা কার্যক্রম এর প্রোগ্রামের কোষাধ্যক্ষ লায়ন মো. মিজানুর করিম জানান, সম্পূর্ণ নিজেদেও অর্থায়নে কক্সবাজারের একশ’ মসজিদেও ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে এই সহযোগিতা করা হয়েছে।

রমজান সেবা কার্যক্রম এর প্রোগ্রামের চেয়ারপার্সন লায়ন ইঞ্জিনিয়ার সাহেদ সালাউদ্দিন জানান, কক্সবাজার লায়ন্স ক্লাবের প্রতিটি উদ্যোগ হবে ব্যতিক্রমধর্মী। আমরা সর্বদায় সমাজের চাহিদা বুঝে কাজ করব। যেখানে অসংগতি সেখানে অংশ নিবে লায়ন্স ক্লাব। পাশাপাশি সমাজের হতদরিদ্র মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কক্সবাজার লায়ন্স ক্লাব সর্বদায় নিজেদের নিয়োজিত রাখবে।

কক্সবাজার লায়ন্স ক্লাবের চার্টার সেক্রেটারি লায়ন রোকনউদ্দিন মুহাম্মদ আল মামুন বলেন, সেবামূলক কর্মকাণ্ড করার জন্য কক্সবাজার লায়ন্স ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশাপাশি সমাজের সকল ভাল কাজের সাথে লায়ন্স ক্লাব কক্সবাজার কাজ করে যাবে।

রমজান উপলক্ষে মঙ্গলবার আয়োজিত প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন, ক্লাবের রমজান সেবা কার্যক্রম এর মেম্বার সেক্রেটারি লায়ন সারোয়ার রোমন, ক্লাবের ফাউন্ডার লায়ন আজহার মাহমুদ পিএমজেএফ, বোর্ড অফ ডিরেক্টরসরা এবং সাধারণ সদস্যবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 7 =

আরও পড়ুন