উখিয়ায় অবৈধভাবে পাহাড় কাঁটার সময় মাটি চাপায় এক শিশু শ্রমিক নিহত

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার হলদিয়াপালং বনবিভাগের পাহাড়ের মাটি অবৈধভাবে কাটার সময় মাটি চাপা পড়ে মোহাম্মদ কালু (১৩) নামের এক শিশু শ্রমিক ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছে। তার লাশ উদ্ধার করা হলেও মাটি চাপা পড়ে এখনো নিখোঁজ রয়েছে ২ জন শ্রমিক।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু শ্রমিক হলদিয়াপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ মৌলভী পাড়া গ্রামের মৃত মখলেছুরজ্জামান প্রকাশ মখলুর পুত্র বলে জানা গেছে। স্থানীয় মেম্বার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের জানান, এ ব্যাপারে হত্যা ও পরিবেশ আইনে মামলা দায়ের করা হবে।

এদিকে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে (রাত ৯ টা) পৌঁছে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে বলে উপজেলা প্রশাসন জানিয়েছেন।

অভিযোগে প্রকাশ হলদিয়াপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ মৌলভী পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হাকিমের পুত্র বাহাদুর মিয়া, বেদার ও ফিরোজের নেতৃত্বে একটি মাটি খেকো সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে সরকারি পি.এফ পাহাড়ের মাটি অবৈধ ভাবে কর্তন করে ডাম্পার যোগে বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করে আসছিল।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, প্রতিদিন ডাম্পার নিয়ে একদল শ্রমিক সরকারি পাহাড় কেঁটে মাটি পরিবহন করে আসছিল। শনিবার প্রতিদিনের ন্যায় ডাম্পার নিয়ে শ্রমিকরা এসে মাটি কেঁটে ডাম্পারের ভর্তি করার সময় মাটিতে চাপা পড়ে কয়েকজন শ্রমিক। তৎ মধ্যে জনগণ মোহাম্মদ কালু শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করে কোর্টবাজার একটি ক্লিনিকে আনা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানান, এখনো মাটি চাপা পড়ে অনেকেই নিখোঁজ রয়েছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন। এছাড়াও পুলিশ নিহতের বাড়িতে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছে।

এদিকে মাটি চাপা পড়ে হতাহতের ঘটনায় জড়িতরা গ্রেফতার এড়াতে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। ঘটনাস্থল থেকে মাটি পরিবহনে ব্যবহৃত ডাম্পার পুলিশ জব্দ করেছে। অভিযোগে প্রকাশ মাটি খেকো সিন্ডিকেট বাহাদুর, বেদার ও ফিরোজের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ পাচারকারীরা হলদিয়াপালং বনবিট কর্মকর্তা মহিউদ্দিনকে টাকার বিনিময় ম্যানেজ করে দীর্ঘদিন ধরে সরকারি পাহাড় অবৈধ ভাবে কর্তন করে মাটি ডাম্পার যোগে পার্শ্ববর্তী এমবিএম ব্রিক ফিল্ড সহ বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করে আসছে। দিন দুপুরে প্রকাশ্যে পাহাড় কেটে ডাম্পার যোগে মাটি সরবরাহ করলেও বিট কর্মকর্তা মহি উদ্দিন রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছে।

খোঁজখবর নিয়ে জানা যায়, হলদিয়াপালং বনবিট এলাকায় সাবেক রুমখাঁ ক্লাশ পাড়া নামক স্থানে পাহাড় কাঁটার সময় গেল বছর বদিউল আলমের ছেলে ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছিল।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + 12 =

আরও পড়ুন