উখিয়ায় নওমুসলিমের ‘মুসলিম হেয়ার কাটিং সেলুন’

fec-image

উখিয়া উপজেলার থাইংখালীতে প্রথম এক নওমুসলিম এর ‘মুসলিম হেয়ার কাটিং সেলুন’ নামের একটি ভিন্ন ধারার সেলুন চালু হয়েছে। ইসলাম ধর্ম সম্পর্কিত জিনিসপত্র দিয়ে সজ্জিত করা হয়েছে সেলুনটি।

সদ্য মুসলিম হওয়া ওই সেলুনের মালিক সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে বলে জানায়। সে মরিচ্যা এলাকার বউ বাজারের শর্মা পাড়ার প্রদীপ শর্মার ছেলে ছোটন শর্মা (২৫)। ২০০৭ সাল থেকে সেলুনে কাজ করা শুরু করে বলে জানায়।

তার বক্তব্য অনুযায়ী, গত ২১ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার কোর্টের সহায়তায় সকল আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ইসলামী শরীয়াহ অনুযায়ী স্বইচ্ছায় মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করে। এর ফলে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হতে হয়েছে তাকে।

বর্তমানে তার দায়দায়িত্ব নিয়েছে থাইংখালী তাজনিমারখোলার বাসিন্দা শফিকুর রহমানের ছেলে মো. বেলাল নামের এক ব্যক্তি।

মো. বেলাল জানায়, সে মুসলিম হওয়ার পর থেকে পরিবারহীন হওয়ায় তার ভালো থাকার দায়িত্ব আমি নিয়েছি। তার পূর্বের নাম পরিবর্তন করে এখন রাখা হয়েছে মো. ইব্রাহীম। সম্প্রতি তাকে আমার দায়িত্বে আত্মীয়দের মধ্য থেকে একটি বিবাহও করিয়েছি। এবিষয়ে প্রশাসন, এলাকাবাসী ও আলেমসমাজ অবগত রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তার ভালো থাকার দায়িত্ব নেওয়ার পাশাপাশি তাকে একটি দোকানের ব্যবস্থা করে দিয়েছি সম্পূর্ণভাবে আমার ব্যক্তিগত খরচে। সেটির মাধ্যমে সে তার ভরনপোষণ ও পরিবারকে সুন্দরভাবে চালিয়ে নিয়ে যাবে বলে আশা করছি।

মো. ইব্রাহীম এর আগে কক্সবাজারের আপন টাওয়ার সড়কে একটি মেন’স পার্লারে কর্মরত ছিলেন।পাশাপাশি সদ্য মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করা ইব্রাহীম সবার দোয়া, ভালোবাসা ও সমর্থন চেয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৮ নভেম্বর সোমবার ০৫নং পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী সহ অসংখ্য আলেমের উপস্থিতিতে মো. ইব্রাহীমের সেলুনের দোকানটি উদ্বোধন করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উখিয়ায়, নওমুসলিমের
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − four =

আরও পড়ুন