উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে : এমপি কমল

fec-image

তথ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য, কক্সবাজার-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রের দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন। এক সময় জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসীরা দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করেছিলো। জননেত্রী শেখ হাসিনা কঠোর হস্তে এদের দমন করছেন বলেই দেশে এখন শান্তির সুবাতাস বইছে। শেখ হাসিনার সরকার সকল সম্প্রদায়ের প্রধান প্রধান ধর্মীয় উৎসবে আর্থিকসহ সকল প্রকার সহযোগিতা দিয়ে আসছেন।

সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেন, দেশের প্রতিটি গ্রামে আজ শহরের মতো উন্নয়ন হচ্ছে। এ এলাকার মানুষের সাথে বিএনপি-জামাত জোট ভোট নিয়ে প্রতিবারই প্রতারনা করেছে। তারা বারবার মানুষকে ঠকিয়েছে। তাদের সময়ের কোন উন্নয়ন চিত্র এ এলাকায় দৃশ্যমান নাই। বঙ্গবন্ধু কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রের দায়িত্ব নেয়ার পর কক্সবাজারকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলমান। উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

তিনি বলেন, দেশ থেকে মাদক, সন্ত্রাস, অনৈতিক কর্মকান্ড দুর করতে খেলাধুলার বিকল্প নাই। তাই ছাত্র ও যুব সমাজকে লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলায় মনোনিবেশ থাকতে হবে।

রবিবার (১৮ অক্টোবর) পৃথক অনুষ্ঠানে এমপি কমল উপরোক্ত কথা বলেন। রবিবার বিকালে আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি সদর উপজেলার ঈদগাঁও ভাদিতলা ও দরগাহ পাড়া এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা মরহুম ছুরুত আলম সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন ও ভাদিতলা ক্রীড়া সংস্থা আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

এর আগে রবিবার সকালে এমপি কমল কক্সবাজার শহরের গোলদিঘীর পাড়স্থ জেলা সৎসঙ্গ মন্দির প্রাঙ্গনে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের পক্ষ থেকে জেলার বিভিন্ন মন্দির উন্নয়ন-সংষ্কার ও দু:স্থ-অসহায়দের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এতে কমল কলেন-মানবতার কল্যাণে কাজ করাই ধর্ম। তিনি বলেন-বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। এই দেশে ধর্ম যার যার উৎসব সবার এই শ্লোগান নিয়ে প্রতিটি ধর্মের মানুষ স্ব স্ব অবস্থানে থেকে উৎসবমূখর পরিবেশে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নে পালন করে আসছেন। এই সম্প্রীতির ধারা সমুন্নত রাখতে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট্রের ট্রাস্টি বাবুল শর্মার সভাপতিত্বে ও জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের কর্মকর্তা সাংবাদিক বলরাম দাশ অনুপমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে-জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সহ-সভাপতি রতন দাশ, উদয় শংকর পাল মিঠু, বিপুল সেন, জেলা সৎসঙ্গ মন্দির পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাউন্সিলর রাজ বিহারী দাশ, মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের সহকারী প্রকল্প পরিচালক বিশ্বজিৎ ব্যানার্জি, জেলা পূজা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু।

উপস্থিত ছিলেন-জেলা সৎসঙ্গ মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডাঃ চন্দন কান্তি দাশ, রামু উপজেলা পূজা কমিটির আহবায়ক তপন মল্লিক, চকরিয়া উপজেলা সভাপতি তপন দাশ, মহেশখালী উপজেলা সভাপতি মাষ্টার ব্রজ গোপাল ঘোষ, জেলা সৎসঙ্গ মন্দিরের প্রধান পুরোহিত বিশ্বনাথ বন্দোপ্যাথায়, পৌর পূজা কমিটির দপ্তর সম্পাদক শুভ দাশ প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র গীতা পাঠ করেন প্রিয়তোষ কান্তি দে। অনুষ্ঠানে জেলা, উপজেলা পূজা কমিটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ, মন্দির ভিত্তিক স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ, বিভিন্ন মঠ-মন্দিরের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া রবিবার রাতে সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি রামুতে গাড়ি শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। এ সময় কক্সবাজার জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের ট্রাষ্টি বাবুল শর্মা, মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম কক্সবাজার জেলার সহকারি প্রকল্প পরিচালক বিশ্বজিৎ ব্যানার্জি, সিনিয়র সাংবাদিক দীপক শর্মা দীপু, রামু উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, ঈদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ছৈয়দ আলম, জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদসহ বিভিন্ন ধর্মীয়, রাজনৈতিক, ক্রীড়া, সামাজিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার, বঙ্গবন্ধু, শেখ হাসিনা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − ten =

আরও পড়ুন