উৎসবমুখর পরিবেশে পানছড়িতে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

Kabinat PIc

শাহজাহান কবির সাজু:
জেলার পানছড়ি উপজেলায় উৎসবমুখর এক পরিবেশের মধ্যে দিয়ে দুইটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হয়েছে কোমলমতি ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের স্টুডেন্ট কেবিনেট যা ‘মিনি পার্লামেট’ হিসাবে বিবেচিত। পানছড়ি উপজেলার পানছড়ি ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা ও লোগাং বাজার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে শনিবার সকাল ৮টা থেকে শুরু করে বিরামহীন বেলা ১টা পর্যন্ত চলে ভোট গ্রহণ।

ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসায় ২০৩ জন ও লোগাং বাজার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫৭৬জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। সবচেয়ে আনন্দের বিষয় ছিল মাদ্রাসা এবং বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরাই প্রধান নির্বাচন কমিশনার, সহ-নির্বাচন কমিশনার, প্রিসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার, পোলিং এজেন্ট ও সেচ্ছাসেবকের দায়িত্ব পালন করে।

সরেজমিনে শনিবার সকাল দশটার দিকে পানছড়ি ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ৬ষ্ঠ থেকে শুরু করে দশম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীরা ব্যস্ত সময় পার করছে ভোট নিয়ে। আর প্রার্থীদের মাঝে বিরাজ করছে টেনশন। কেউ কেউ টেনশনে দাঁতের ফাঁকে নখ কাটছে।

প্রিসাইডিং অফিসার ১০ম শ্রেণীর ছাত্র জাহিদুল জানান, খুব প্রাণবন্ত পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে। জাল ভোট সম্পর্কে জানতে চাইলে সে জানায়, জাল ভোটের প্রশ্নই আসেনা। জাতীয় নির্বাচনের মত স্বচ্ছ ব্যালট পেপার, ভোট কেন্দ্র ও আলাদা আলাদা বুথেই ভোট গ্রহণ চলছে এবং ভোট গ্রহণ শেষে ভোটারদের আঙ্গুলে কালি দিয়ে চিহ্নিত করে দেয়া হচ্ছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ১০ম শ্রেণীর ছাত্র মো: হোসেন জানায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণীর সর্বমোট ১৫জন ছাত্র-ছাত্রী নির্বাচনে অংশ নেয়। এদের মধ্যে থেকে ৮জন এক বছর মেয়াদি কেবিনেটের সদস্য হবে।

প্রার্থী মহিবুল্লাহ, মো: আবদুল জব্বার, রুপিয়া আক্তার, ফারজানা আক্তার ও মোনেমউজ্জামান রাফি পাশের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তারা কেউ ৩৫০, কেউ ৪০০ কেউবা ৫০০ টাকা নির্বাচনী কাজে ব্যয় করেছেন। ভোটারদের কাছ থেকে ভোট পেতে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র রাফি ১টি চকলেট বিতরণ করার এক হাস্যকর তথ্য দেন।

ভোট চলাকালে কেন্দ্র দু’টি পরিদর্শন করেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো: শাহজাহান মিয়া। তিনি জানান, খুব সুন্দর নির্বাচন হয়েছে। ভোটে জয়ী ৮সদস্যর মাঝে সহসাই দপ্তর বণ্টন করা হবে। এ স্টুডেন্ট কেবিনেট আগামী দিনের নেতৃত্ব তৈরীতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলেও তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen + 5 =

আরও পড়ুন