উৎসাহ-উদ্দীপনায় রাঙামাটিতে পালিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গাপূজা

fec-image

শারদীয় দূর্গোৎসবের আজ মহাসপ্তমী। পূজার দ্বিতীয় দিন পার হচ্ছে। নবপত্রিকা মতে স্নানের মাধ্যমে শুরু, শাস্ত্র মতে ঢাকে কাঠি পড়বে পূজোর।

শনিবার (৫ অক্টোবর) সকালে পূজার মধ্যে দিয়ে মহাসপ্তমীর আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। সন্ধ্যায় সন্ধ্যা আরতির মধ্য দিয়ে শুরু হবে মা দেবী দুর্গা দর্শন।

সার্বজননী এই পূজায় সনাতন সম্প্রদায়ের হলেও সকল সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে। মন্দিরে মন্দিরে দেবী দর্শন করবে পাহাড়ি-বাঙ্গালী, হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান সকল সম্প্রায়ের মানুষ।

শুক্রবার মহা ষষ্ঠী পূজার মধ্যে দিয়ে রাঙামাটির ৪২ টি পূজা মন্ডপে একযোগে শুরু হয়েছে শারদীয়া দূর্গোৎসব।

পূজা উদযাপন পরিষদ রাঙামাটি শাখার সভাপতি অমর কুমার দে বলেন, এ বছর অত্যন্ত আনন্দ, উদ্দীপনায় পূজা শুরু হয়েছে। আমরা অনেক খুশি সঠিক সময়ে সবকিছু করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, পাহাড়ের যেকোন উৎসব সার্বজনীন। পাহাড়ি-বাঙালী মিলেমিশে একাকার হয়ে যায়।

রাঙমাটি জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি বাদল চন্দ্র দে বলেন, আমরা অনেক খুশি। বিশ্বাস করি সুষ্ঠুভাবে আমাদের পূজা উৎসব শেষ করতে পারবো। এ জন্য বর্তমান সরকার আমাদের নানাভাবে সহায়তা করে যাচ্ছে। পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নিরাপত্তায় আমাদের সহযোগিতা করে যাচ্ছে।

এদিকে এ বছর জেলার সদরে ১৫ টি পূজা মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বাঘাইছড়ি উপজেলায় ৪টি, লংগদু উপজেলায় ৪টি, কাপ্তাই উপজেলায় ৭টি, কাউখালী উপজেলায় ৪টি, রাজস্থলী উপজেলায় ৩টি, বরকল উপজেলায় ২টি এবং জুরাছড়ি, বিলাইছড়ি এবং নানিয়ারচর উপজেলায় ১ টি করে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 − 5 =

আরও পড়ুন