এ বছর হজের খুতবা দেবেন শায়েখ মাহের আল মুয়াইকিলি

fec-image

এ বছর পবিত্র হজের খুতবা দেবেন পবিত্র মসজিদুল হারামের ইমাম ও খতিব শায়েখ ড. মাহের আল মুয়াইকিলি। সৌদি আরবের গণমাধ্যমেবর খবরে বলা হয়েছে, পবিত্র আরাফার ময়দানে মসজিদে নামিরাহ থেকে হজের খুতবা দেবেন এই ইমাম।

সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ সম্প্রতি এক রাজকীয় ফরমানে শায়েখ মাহের আল মুয়াইকিলিকে আরাফাতের দিন খুতবা দেওয়ার অনুমতি দেন।

গত বছর হজের খুতবায় শায়খ ড. ইউসুফ বিন মুহাম্মদ বিন সাঈদের সহযোগী ছিলেন মাহির আল মুয়াইকিলি।
পবিত্র কোরআনের দারুণ তিলাওয়াতের জন্য বিশ্বব্যাপী প্রসিদ্ধ মুয়াইকিলি। ১৯৬৯ সালের ৭ জানুয়ারি তিনি পবিত্র মদিনায় জন্মগ্রহণ করেন। হিফজ শেষ করে মদিনার টিচার্স কলেজে ভর্তি হন। সেখান থেকে তিনি গণিতের শিক্ষক হিসেবে ব্যাচেলর ডিগ্রি অর্জন করেন।

১৪২৫ হিজরিতে পবিত্র মক্কার উম্মুল কুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শরিয়াহ্‌ অনুষদ থেকে মাহের বিন হামাদ মাস্টার্স ডিগ্রি নেন। একই প্রতিষ্ঠান থেকে ১৪৩২ হিজরিতে ইমাম সিরাজি রহ. রচিত শাফেয়ী মাজহাবের কিতাব ‘তুহফাতুন নাবিহ শারহুত তানবিহ’র ওপর ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন।

মাহের বিন হামাদের কর্মজীবন শুরু হয় উম্মুল কুরার জুডিশিয়াল স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হিসেবে। ১৪২৬-২৭ হিজরির পবিত্র রমজানে মসজিদে নববির সহকারী ইমামের দায়িত্ব পান তিনি। ১৪২৮ হিজরির রমজানে মসজিদুল হারামের তারাবিহ ও তাহাজ্জুদের ইমাম মনোনীত হন। এরপর ওই বছরই আনুষ্ঠানিকভাবে মসজিদুল হারামের স্থায়ী ইমাম ও খতিবের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা ৯ জিলহজ। এদিন মসজিদে নামিরাহ থেকে হজের মূল খুতবা আরবিতে দেওয়া হয়। সৌদি আরবের সরকারি ওয়েবসাইট থেকে সরাসরি খুতবার অনুবাদ সম্প্রচার করা হবে। এবারও বাংলা, ইংরেজি, ফরাসি, মালয়, উর্দু, ফারসি, রুশ, চীনা, তুর্কি, স্প্যানিশ, হিন্দি, তামিল, সোয়াহিলিসহ ১৪টি ভাষায় হজের খুতবা অনুবাদ করা হবে।

এবার খুতবা বাংলায় অনুবাদ করার দায়িত্বে থাকবেন মক্কার উম্মুল কুরা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ড. খলীলুর রহমান, আ ফ ম ওয়াহিদুর রহমান মাক্কী, মুবিনুর রহমান ফারুক ও নাজমুস সাকিব।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন