যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর রায়

কক্সবাজারে অস্ত্র মামলার আসামির ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড

fec-image

কক্সবাজারে অস্ত্র মামলায় মো. শহীদুল্লাহ (২২) নামের আসামির ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সে রামুর ঈদগড়ের ছগিরশাহ কাটার মকবুল আহম্মদের ছেলে।

মামলার অপর দুই আসামি একই এলাকার বাসিন্দা মৃত ফজল করিমের ছেলে আব্দুর রহমান ও মৃত আব্দু শুক্কুরের ছেলে নুরুল আলম নির্দোষ প্রমাণ হওয়ায় মামলা থেকে খালাস প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুুপরে এসপিটি মামলা নং-০৪/০৭ শুনানি শেষে এ রায় ঘোষণা দেন যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহমুদুল হাসান। রায় প্রদানকালে আসামি পলাতক ছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট জিয়াউদ্দিন আহমেদ।

তিনি জানান, আসামি মো. শহীদুল্লাহর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯ (এ) ধারায় ১০ বছর ও ১৯ (এফ) ধারায় ৭ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক। আসামি পলাতক। গ্রেফতারের পর থেকে রায় দুটি একই সঙ্গে কার্যকর হবে। আদালতের রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। এতে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট ঈদগড় ছগিরশাহ কাটার আবদুর রহমানের বসতবাড়ির উঠান এবং পশ্চিমমুরা গভীর অরণ্যের আরেকটি বাসা থেকে অবৈধ অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় পরের দিন রামু থানায় মামলা করেন পুলিশ উপপরিদর্শক (এএসআই) ওমর ফারুক। যার থানা মামলা নং-১৭/০৬ (এসপিটি-০৪/০৭)। এসআই দিদারুল ফেরদৌস মামলাটি তদন্ত করেন। ২০০৮ সালের ৩ আগস্ট মামলার চার্জ গঠন হয়। ঘটনার দীর্ঘ ১৬ বছরের মাথায় মামলার রায় হলো।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × five =

আরও পড়ুন