কক্সবাজারে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান প্রস্তুতি

fec-image

ঘূর্ণিঝড়ে আম্ফান এর প্রভাবে কক্সবাজার উপকূলে গত কয়দিন ধরে প্রচণ্ড গরম অনুভূত হচ্ছে। গত কয়েকদিন থেকে সোমবার (১৮ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত গুমোট আবহাওয়া ও ভ্যাপসা গরম অব্যাহত রয়েছে । ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর প্রচণ্ড উত্তাল রয়েছে। কক্সবাজার ৬ নম্বর বিপদ সংকেত অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন উপকূলীয় উপজেলাগুলোসহ প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা দুর্যোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা কমিটির দফায় দফায় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জানান, উপকূলীয় উপজেলা গুলোতে নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রস্তুতি গ্রহণ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি কক্সবাজার উপকূলে ৫৭৩ টি সাইক্লোন শেল্টার, স্বেচ্ছাসেবক এবং প্রয়োজনীয় যানবাহন প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এছাড়াও উপকূলীয় এলাকার বিভিন্ন স্কুল মাদরাসায় আশ্রয় নেয়ার জন্য জনগণকে সচেতন করা হচ্ছে। নিম্নাঞ্চলের লোকজনকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসা হচ্ছে।

ওদিকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ক্ষতি মোকাবেলায় সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিষন সদস্যরা ১০ হাজার স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে প্রস্ত্তুত রয়েছেন।

কক্সবাজার পৌরসভা মেয়র মুজিবুর রহমান জানান, শহরের নিম্নাঞ্চল থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লোকজনকে সাইক্লোন শেল্টারে নিয়ে আনার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 7 =

আরও পড়ুন