করোনায় অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে মানিকছড়ি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

fec-image

করোনা নিয়ে ভয় নয়, আসুন সচেতন হই” এবং “আমরা আপনার জন্য বাহিরে আছি, আপনারা আমাদের জন্য ঘরে থাকুন”স্লোগান নিয়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে গত ২৬ মার্চ থেকে দিনরাত প্রতিদিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, মানিকছড়ি ইউনিটের স্বেচ্ছাসেবী সদস্যরা।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জনগণকে সচেতন করে তুলতে প্রচার-প্রচারণা, লিফলেট বিতরণ, গাড়ি, পথচারী ও উপজেলাধীন বিভিন্ন বাজারে স্প্রের মাধ্যমে জীবাণুনাশক ঔষধ ছিটানো, সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করা, কোয়ারেন্টিনে থাকে ব্যক্তিদের খোজ খবর রাখা এবং উপজেলা প্রশাসনের কাজে সহযোগিতা করা, নিজস্ব তহবিল থেকে ত্রাণ বিতরণসহ বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছেন খাগড়াছড়ি জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মানিকছড়ি ইউনিট।

আমরা দৃশ্যমান শত্রুদের মোকাবেলা করার কথা অনেকেই জানি। কিন্তু বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস আমাদের অদৃশ্য শত্রু। যা দেখা যায় না। এ করোনাভাইরাস শুধু সংক্রমিত ব্যক্তির মাধ্যমে তা অন্যের গায়ে ছড়িয়ে পড়ে। তাই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি সংষ্পর্শ এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে।

ইতোমধ্যে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চলছে লগডাউন। বর্তমানে মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। তাছাড়া বিশ্বে প্রায় ৪০ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। দিন দিন মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। মানুষের মাঝে যখন আতংক বিরাজ করছে ঠিক তখনই নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে করোনাভাইরাস নামক অদৃশ্য শত্রুদের মোকাবিলা করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মানিকছড়ি ইউনিট।

তাদের উক্ত কার্যক্রমের প্রশংসা করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন, ইউএনও তামান্না মাহমুদ‘সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

অত্র ইউনিটের যুব প্রধান মো. আশ্রাফুল আলম বলেন, “যেকোন যুদ্ধের বিজয়ের ইতিহাসে রয়েছে তরুণদের ত্যাগ ও সাহসিকতা। আজ সারাবিশ্ব যখন করোনা মহামারিতে আতঙ্কিত তখন আমরা তরুণ স্বেচ্ছাসেবকরা মানুষের সচেতনতা, সহযোগিতা এবং জীবাণু ধ্বংসের যুদ্ধে নেমেছি।

পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সরঞ্জাম না থাকায় স্বাস্থ্যের ঝুঁকি রয়েছে। তবে ঝুঁকির মধ্য দিয়েও আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের কিছু পিপিই বা নিরাপদ পোশাকের ব্যবস্থা থাকলে কাজের পরিধি আরও বাড়ানো যেত।

যুদ্ধে বিজয়ী হওয়া না পর্যন্ত আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আমাদের প্রত্যাশা সবাই যদি সহযোগিতা এবং সরকারি নির্দেশনা মেনে চলি তবে খুব শীঘ্রই আমাদের মাঝে সুদিন ফিরে আসবে।”

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস, খাগড়াছড়ি, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 + 15 =

আরও পড়ুন